আগামীকাল রোববার পবিত্র শবে বরাত। শবে বরাতের পবিত্রতা রক্ষার্থে এবং অনুষ্ঠানটি সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে উদ্‌যাপন নিশ্চিতকরণকল্পে রোববার (২১ এপ্রিল) সন্ধ্যা ছয়টা থেকে পরদিন সোমবার (২২ এপ্রিল) সকাল ছয়টা পর্যন্ত বিস্ফোরকদ্রব্য, আতশবাজি, পটকাবাজি, অন্যান্য ক্ষতিকারক ও দূষণীয় দ্রব্য বহন এবং ফোটানো নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি)।

ঢাকা মহানগর এলাকায় শান্তিশৃঙ্খলা রক্ষা করার জন্য ডিএমপি অধ্যাদেশের অর্পিত ক্ষমতাবলে এ নির্দেশ দেন ডিএমপি কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া। সবাইকে এ নিষেধাজ্ঞা মেনে চলার জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন তিনি।

উল্লেখ্য, এর আগে শবে বরাতের তারিখ নিয়ে একটি সংগঠন মামলা করলে আদালত বলেন, ধর্মীয় বিষয়ে হস্তক্ষেপ করবেন না হাই কোর্ট। পরবর্তীতে পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী ২১ এপ্রিল দিবাগত রাতেই সারাদেশে পবিত্র শবে বরাত পালিত হবে বলে সচিবালয়ে এক সংবাদ ব্রিফিংয়ে জানান ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মো. আব্দুল্লাহ।

পবিত্র শাবান মাসের চাঁদ দেখার সিদ্ধান্তের বিষয়ে ভিন্নমত পোষণকারী ব্যক্তিদের দাবি যাচাইয়ে ১৩ এপ্রিল গঠিত সাব–কমিটির সিদ্ধান্তের আলোকে প্রতিমন্ত্রী এই তথ্য জানান।

এর আগে, ৬ এপ্রিল জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভায় ২১ এপ্রিল দিবাগত রাতে পবিত্র লাইলাতুল বরাত পালনের সিদ্ধান্ত হয়েছিল। ওই সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, ওই দিন বাংলাদেশের আকাশে কোথাও ১৪৪০ হিজরি সনের পবিত্র শাবান মাসের চাঁদ দেখা যায়নি। ফলে ৭ এপ্রিল রোববার পবিত্র রজব মাসের ৩০ দিন পূর্ণ হবে এবং ৮ এপ্রিল থেকে পবিত্র শাবান মাস শুরু হবে।

কিন্তু ওই সিদ্ধান্তের বিষয়ে ভিন্নমত এলে ১৩ এপ্রিল জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভাপতি ও ধর্ম প্রতিমন্ত্রীর সভাপতিত্বে আবারও সভা হয়। সভায় পবিত্র শাবান মাসের চাঁদ দেখার সিদ্ধান্তের বিষয়ে ভিন্নমত পোষণকারী ব্যক্তিদের দাবি যাচাইয়ে মারকাযুদ দাওয়াহ–এর শিক্ষাসচিব মুফতি মুহাম্মদ আবদুল মালেককে প্রধান করে বিশিষ্ট উলামায়ে কেরামের সমন্বয়ে ১১ সদস্যের একটি সাব–কমিটি গঠন করা হয়।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here