আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজ ও ইংল্যান্ডে বিশ্বকাপ খেলতে দেশ ছেড়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। তবে দলের সঙ্গে যাননি সাকিব আল হাসান। আলাদাভাবে বিকেলে স্ব-পরিবারে আয়ারল্যান্ডের উদ্দেশে বিমানে উঠার কথা তার।

অধিনায়ক মাশরাফি মর্তুজার নেতৃত্বে ত্রিদেশীয় সিরিজের স্কোয়াডের ১৯ ক্রিকেটারের মধ্যে ১৭ ক্রিকেটার ও সাপোর্ট স্টাফরা সকাল ১০টায় এমিরেটস এয়ারলাইন্সে করে দেশ ছাড়েন। স্কোয়াডে থাকা অলরাউন্ডার ফরহাদ রেজা আগের রাত তিনটায় আলাদা ফ্লাইটে যাত্রা করেছেন।  আর সাকিব বিকেলে যাবেন আলাদাভাবে ।

এমিরেটস এয়ারলাইন্স করে বাংলাদেশ দল প্রথমে যাবে দুবাইতে। সেখানে দুই ঘণ্টার যাত্রা বিরতির পর মাশরাফি মর্তুজার দল ধরবে ডাবলিনের বিমান।

যাওয়ার আগে  অধিনায়ক মাশরাফি জানিয়েছেন বিশ্বকাপের প্রস্তুতিতেই আয়ারল্যান্ড সফরটা ভীষণ গুরুত্বপূর্ণ তাদের, ‘আমরা প্রস্তুতির জন্য আয়ারল্যান্ডকে বেছে নিয়েছি। সেখানকার উইকেট খুব গুরুত্বপূর্ণ। যে উইকেটটা ইংল্যান্ডে থাকবে সেটা যেন পাই। আর সেখানে প্রত্যেকটা ম্যাচ জয় করা অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ। বিশ্বকাপের জন্য আলাদা অ্যাডভান্টেজ হবে যদি আমরা এখান (আয়ারল্যান্ডে) থেকে জিতে ওখানে (ইংল্যান্ড) যেতে পারি।’

৫ মে থেকে আয়ারল্যান্ডে শুরু হচ্ছে ত্রিদেশীয় টুর্নামেন্ট। ৭ মে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে নামবে বাংলাদেশ। ৯ মে বাংলাদেশ খেলবে স্বাগতিকদের বিপক্ষে, ১৩ মে আবার খেলা ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে। ১৫ মে আইরিশদের বিপক্ষে ফিরতি ম্যাচ দিয়ে শেষ হবে প্রথমিক পর্বে। ফাইনালে উঠলে ১৭ মেতে শেষ হবে মাশরাফিদের আইরিশ মিশন।

বিশ্বকাপের প্রস্তুতির লক্ষ্যে ওই টুর্নামেন্ট থেকে বাংলাদেশ বিশ্বকাপের টিম কম্বিনেশন যাচাই করতে চায়। ত্রিদেশীয় টুর্নামেন্টের পর ব্রিস্টলে গিয়ে ইংলিশ কন্ডিশনের সঙ্গে মানিয়ে নেওয়ার কাজ শুরু করবেন মাশরাফিরা। বিশ্বকাপের আগে ২৬ মে ও ২৮ মে কার্ডিফে পাকিস্তান ও ভারতের বিপক্ষে দুটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ।

মূল বিশ্বকাপে ২ জুন ওভালে বাংলাদেশের প্রথম ম্যাচের প্রতিপক্ষ দক্ষিণ আফ্রিকা।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here