এবারের আইপিএল মৌসুম ভালোভাবে শুরু করেও ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে পারেনি প্রীতি জিনতা-নেস ওয়াদিয়ার কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব। ১২ ম্যাচ শেষে পয়েন্ট টেবিলের তলানির দিকেই আছে। প্লে-অফ খেলার সমীকরণে পিছনে পড়ে যাওয়া দলটি আইপিএল থেকেও হতে পারে বহিষ্কার। দলটির অন্যতম মালিক নেস ওয়াদিয়া গত মাসে জাপানে নিষিদ্ধ ড্রাগ বহন করে হয়েছেন গ্রেফতার, সাজা হিসেবে দুই বছরের জেল। আইপিলে কলঙ্ক জড়ানোয় দলটিকেও নিষিদ্ধ করার গুঞ্জন চলছে চারদিকে।

বলিউড নায়িকা প্রীতি জিনতার সাবেক প্রেমিক, ভারতের বিখ্যাত ওয়াদিয়া গ্রুপ ও বোম্বে ডাইং এর মালিক নেস ওয়াদিয়া এর আগেও ভিন্ন ভিন্ন কারণে হয়েছিলেন বিতর্কিত। তবে এবার ভিনদেশে অবৈধ মাদকসহ ধরা পড়ে জেল খাটার পাশাপাশি দাগ ফেলেছেন আইপিএলেও। দলটির অন্যতম শরীকদার এই বিখ্যাত ব্যবসায়ীর এমন কান্ডে অপমানিত হয়েছেন ভারতীয় বোর্ড ও আইপিএল কতৃপক্ষ।

আইপেলের নিয়মানুসারে ফ্র্যাঞ্চাইজি মালিকদের কোন আচরণ কিংবা বক্তব্য আইপিএলকে লজ্জায় ফেললে ওই ফ্র্যাঞ্চাইজিটিকে আইপিএল থেকেই বহিষ্কার করার এখতিয়ার রাখে ভারতীয় বোর্ড ও আইপিএল কতৃপক্ষ। এর আগে ফিক্সিং কেলেঙ্কারিতে রাজস্থান রয়্যালস ও চেন্নাই সুপার কিংসের মত দলকেও আইপিএল থেকে থাকতে হয়েছিল নির্বাসিত হয়ে।

মূলত ২০২০ সালে জাপানে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া টোকিও অলিম্পিককে কেন্দ্র করেই বেশ কড়াকড়ি অবস্থান নিয়েছে জাপান সরকার। এর ফলে অবৈধ মাদক বহনের অপরাধে মোটামুটি ভালো শাস্তির মুখেই পড়তে হয়েছে ৪৭ বছর বয়সী কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের অন্যতম মালিক নেস ওয়াদিয়াকে। যার প্রভাব পড়বে ফ্র্যাঞ্চাইজিটির উপরও, এমনটাই ধারণা আইপিল সংশ্লিষ্টদের।

এর আগে দলটির আরেক শরীকদার বলিউড অভিনেত্রী প্রীতি জিনতা ওয়াদিয়ার বিরুদ্ধে অশালীন আচরণের অভিযোগ আনেন। প্রেমিকার করা এমন অভিযোগে অবশ্য সমঝোতায় বিতর্ক সামলান বিখ্যাত এই ব্যবসায়ী। তবে এবার ছুটি কাটাতে গিয়ে যে অভিযোগে অভিযুক্ত হয়েছেন, সেটি থেকে যে দ্রুত অবসান মিলছেনা সেটা নিশ্চিত। সাথে ভোগান্তিতে পড়বে তার মালিকানাধীন আইপিএল ফ্র্যাঞ্চাইজিকেও।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here