ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে রাষ্ট্রীয় গোপন তথ্য ফাঁস করার দায়ে তার প্রতিরক্ষামন্ত্রী গেভিন উইলিয়ামসনকে বরখাস্ত করেছেন। উইলিয়ামসন ব্রিটেনের ন্যাশনাল সিকিউরিটি কাউন্সিল বা এনএসসি’র এক বৈঠকে চীনা টেলিযোগাযোগ কোম্পানি হুয়াওয়েকে নিয়ে এক আলোচনার তথ্য বাইরে ফাঁস করে দিয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

থেরেসা মে বলেছেন, মন্ত্রিসভার বৈঠকে উইলিয়ামসনের ওপর আর আস্থা রাখা যাচ্ছে না বলে তাকে সরিয়ে দেয়া হয়েছে। উইলিয়ামসন অবশ্য এনএসসি’র বৈঠকের তথ্য ফাঁস করার অভিযোগ ‘দৃঢ়ভাবে’ অস্বীকার করেছেন।

ব্রিটেনের সবচেয়ে গোপনীয় বিষয়গুলো এনএসসির আলোচনায় উত্থাপন করা হয়। সিনিয়র ব্রিটিশ মন্ত্রীরাই এনএসসি’র সদস্য। এতে সভাপতিত্ব করেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী।

গত সপ্তাহে অনুষ্ঠিত এনএসসির বৈঠকে হুয়াওয়ে কোম্পানিকে ফাইভ জি নেটওয়ার্কের কাজ দেয়া নিয়ে আলোচনা হয়। দ্য টেলিগ্রাফ এ খবর প্রকাশ করলে পার্লামেন্টে আলোচনা ঝড় ওঠে। এতে বিব্রতকর পরিস্থিতিতে পড়ে তেরেসা মের সরকার।

এ জন্য ২০১৭ সাল থেকে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পালন করা উইলিয়ামসনকে পদত্যাগ করতে বলা হয়। এ সংক্রান্ত চিঠিতে দেশটির প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, এই তথ্য ফাঁসের একটি তদন্তে তার দায়িত্বহীনতার প্রমাণ পাওয়া গেছে। এছাড়া অন্য কাউকে দায়ী করার মতো প্রমাণ পাওয়া যায়নি।

উইলিয়ামসন এই ঘটনায় তার দায় অস্বীকার করে বলেছেন, এই ঘটনার পূর্ণাঙ্গ তদন্ত হলে তিনি নিজেকে নিরাপরাধ প্রমাণ করতে পারবেন বলে বিশ্বাস করেন।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here