‘অতি শক্তিশালী প্রবল ঘূর্ণিঝড়’ ফণী ভারতের ওড়িশার পুরীতে আঘাত হেনেছে। শুক্রবার সকাল ৯ টা নাগাদ ঘূর্ণিঝড়টি আঘাত হানে বলে জানা যায়। খবর বার্তা সংস্থা এএনআইয়ের।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ঝড়ের একটানা গতিবেগ ঘণ্টায় ১৭০ থেকে ১৮০ কিলোমিটার, যা দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়া আকারে ২০০-২৩০ কিলোমিটার পর্যন্ত বৃদ্ধি পাচ্ছে।

খবরে বলা হয়েছে, ঘূর্ণিঝড়টির আঘাতে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির মুখে পড়বে পুরী। এই মধ্যে বিভিন্নস্থানে ভূমিধসের ঘটনাও ঘটেছে।

ভারতের আবহাওয়া অধিদফতরের (আইএমডি) অতিরিক্ত মহাপরিচালক মৃত্যুঞ্জয় মহাপাত্র জানিয়েছেন, দুপুর পর্যন্ত ওড়িশা অবস্থান করবে ফণী। এরপরে তটরেখা ধরে সেটি পশ্চিমবঙ্গে ঢুকে দক্ষিণবঙ্গের ওপর দিয়ে বাংলাদেশের দিকে চলে যেতে পারে।

এদিকে, ওড়িশা রাজ্য সরকার ইতোমধ্যে সেখান থেকে প্রায় ১১ লাখ মানুষকে সরিয়ে নিয়েছে। রাজ্যে খোলা হয়েছে ৮৭৯টি সাইক্লোন সেন্টার। যাতে ১১ লাখ লোকের জরুরি অবস্থানের ব্যবস্থা রয়েছে। কোস্টগার্ড ও নৌবাহিনী হেলিকপ্টার এবং জাহাজের মাধ্যমে কার্যক্রম পরিচালনার জন্য প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছে। অন্ধ্র প্রদেশ, ওড়িষা ও পশ্চিমবঙ্গে প্রস্তুত রয়েছে বিমান বাহিনীও।

 

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here