সম্ভাব্য মার্কিন আগ্রাসনের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর জন্য সেনাবাহিনী প্রস্তুত থাকার নির্দেশ দিয়েছেন ভেনিজুয়েলার প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরো। তিনি স্থানীয় সময় গতকাল (শনিবার) এক সেনা সমাবেশে বলেন, “যদি কোনোদিন সাম্রাজ্যবাদী আমেরিকা ভেনিজুয়েলায় হামলা চালানোর সাহস দেখায় সেদিন তার মোকাবিলা করার জন্য আপনারা সমরাস্ত্র প্রস্তুত রাখুন।”

এর আগে শনিবারই মার্কিন গণমাধ্যমগুলো খবর দেয়, ভেনিজুয়েলায় সামরিক হস্তক্ষেপ করার বিষয় নিয়ে  মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের জাতীয় নিরাপত্তা টিমের সদস্যরা বৈঠক করেছেন। মার্কিন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জন বোল্টন, পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও এবং ভারপ্রাপ্ত প্রতিরক্ষামন্ত্রী প্যাট্রিক শাহানান এ বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।

জন বোল্টন ও মাইক পম্পেও গত কয়েকদিনে একাধিকবার ভেনিজুয়েলায় সামরিক হস্তক্ষেপের হুমকি দিয়েছেন।

আমেরিকা ও তার পশ্চিমা মিত্ররা যেকোনো উপায়ে প্রেসিডেন্ট মাদুরোকে ক্ষমতাচ্যুত করে  বিরোধী নেতা হুয়ান গুয়াইদোকে ভেনিজুয়েলার ক্ষমতায় বসাতে চায়। গত সপ্তাহে গুয়াইদোকে দিয়ে একটি সামরিক অভ্যুত্থানের চেষ্টা করে ব্যর্থ হয় আমেরিকা। ভেনিজুয়েলার সেনাবাহিনীর শীর্ষ কমান্ড প্রেসিডেন্ট মাদুরোর প্রতি আনুগত্য প্রকাশ করায় ওই অভ্যুত্থান প্রচেষ্টা ব্যর্থ হয়।

বামপন্থি প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরো সাম্রাজ্যবাদী আমেরিকার স্বার্থের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোয় মার্কিন সরকার তাকে ক্ষমতাচ্যুত করার জন্য উঠেপড়ে লেগেছে। তবে রাশিয়া ও চীনের মতো বৃহৎ শক্তিগুলোর পাশাপাশি ইরান ও তুরস্কসহ আরো বেশ কিছু দেশ মাদুরো সরকারের প্রতি সমর্থন ঘোষণা করেছে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here