সন্ত্রাসী গোষ্ঠীগুলোর কাছ থেকে হত্যার হুমকি পাওয়া বাংলাদেশি নাগরিকদের জন্য বিশেষ নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হবে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

একটি জঙ্গি সংগঠন থেকে হত্যার হুমকি পেয়েছেন মুনতাসীর মামুন, ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির সভাপতি শাহরিয়ার কবির ও মানবাধিকারকর্মী সুলতানা কামাল। তাদের নিরাপত্তা দেওয়ার বিষয়ে এ কথা জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

রবিবার (৫ মে) দুপুর ১২টায় রাজধানীর তেজগাঁওয়ে বাংলাদেশ টেক্সটাইল বিশ্ববিদ্যালয়ে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে সাংবাদিকের এসব কথা জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। এছাড়া হুমকির ঝুঁকি মোকাবিলায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ও গোয়েন্দা সংস্থা কাজ করছে বলেও জানান তিনি।

বাংলাদেশে জঙ্গিবাদের পেছনে স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক মহলের ষড়যন্ত্র ছিল এবং এখনও আছে বলে সন্দেহ প্রকাশ করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, তাদের দমন করা গেলেও মূল উৎপাটন করা সম্ভব হয়নি। তারাই মাঝেমধ্যে হুমকি-ধমকির মাধ্যমে আত্মপ্রকাশ করে।

তবে তাদের হুমকিতে বাংলাদেশের মানুষ কখনোই ভয় পায় না বলে উল্লেখ করে আসাদুজ্জামান কামাল বলেন, কারণ এ দেশের মানুষ সংগ্রাম করেই আজকের অবস্থানে এসেছে।

উল্লেখ্য, আল-কায়েদা সমর্থিত বাংলা সাময়িকী লোন উলফের মার্চ সংখ্যায় বাংলাদেশের তিন বিশিষ্ট নাগরিককে হত্যার হুমকি দেয়া হয়। এ-সংক্রান্ত খবর শনিবার বিভিন্ন গণমাধ্যমে আসে। হত্যার হুমকি পাওয়ার পর রবিবার বেলা সোয়া একটার দিকে ধানমন্ডি থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন অধ্যাপক মুনতাসীর মামুন।

এ বিষয়ে ধানমন্ডি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল লতিফ জানান, সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর হুমকির পরিপ্রেক্ষিতে দুপুরে মুনতাসীর মামুনের একজন অফিস সহাকরী এসে জিডি করেন।

এছাড়া শনিবার দুপুর সাড়ে ১২টায় নিরাপত্তা চেয়ে সাধারণ ডায়েরি করেছেন তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা ও মানবাধিকারকর্মী সুলতানা কামাল।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here