মস্কোর শেরেমেতিয়েভো বিমানবন্দরে জরুরি অবতরণের সময় রাশিয়ান এয়ারলাইন্সের একটি বিমানে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় অন্তত ৪০ জনের মৃত্যু হয়েছে।

দেশটির কর্মকর্তারা জানান, রবিবার সন্ধ্যায়(স্থানীয় সময়) জরুরি অবতরণের পরপরই সুখোই সুপারজেট-১০০ উড়োজাহাজটির ইঞ্জিনে আগুন ধরে যায়। এরোফ্লোট এয়ারলাইন্সের ওই বিমানটিতে  ৭৩জন যাত্রী এবং ৫ জন ক্রু ছিল।

রুশ তদন্ত কমিটির মুখপাত্র এলেনা মার্কোভাস্কায়া সোমবার ভোরের দিকে জানান, ৪১জন মারা গেছে। তবে দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রী ভেরোনিকা স্কাভোর্টসভা ৪০ জন নিহত এবং ৩৮ জন জীবীত উদ্ধার হওয়ার কথা জানিয়েছেন।

রুশ তদন্ত কমিটি সূত্রে জানা যায়, নিহতদের মধ্যে যাদের পরিচয় পাওয়া গেছে; তাদের মধ্যে একজন ক্রু এবং অন্তত দু’জন কিশোর/কিশোরী রয়েছে।

এদিকে ভিডিও ফুটেজে আরোহীদের জ্বলন্ত উড়োজাহাজের ‘ইমার্জেন্সি এক্সিট’ দিয়ে বেরিয়ে আসার চেষ্টা করতে দেখা যায়।

দুর্ঘটনার পর বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ এক বিবৃতিতে জানান, রাশিয়ার উত্তরাঞ্চলের শহর মারমানস্কর উদ্দেশে উড্ডয়নের পর যান্ত্রিক ত্রুটির কথা জানিয়ে পাইলট বিমানটিকে আবার শেরেমেতিয়েভোয় জরুরি অবতণের জন্য ফিরে আসে। কিন্তু অবতরণকালে বিমানটিতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় এ হতাহতের ঘটনা ঘটে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here