সরকারের আহ্বানে যেসব মাদক ব্যবসায়ী আত্মসমর্পণ করবেন তাদের স্বাভাবিক জীবনে ফিরে যাওয়ার সুযোগ দেওয়া হবে। আর যারা করবেন না তাদের জন্য কঠোর ব্যবস্থা থাকবে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন।

সোমবার (৬ মে) বেলা ১২টায় চুয়াডাঙ্গা-৬ বিজিবির সদর দপ্তরে মাদকদ্রব্য ধ্বংস অনুষ্ঠানে বক্তৃতা শেষে সাংবাদিকদের কাছে তিনি এমন হুঁশিয়ারি জানান।

তিনি বলেন, অতীতে আমরা জঙ্গি দমনে সফল হয়েছি। বাংলাদেশের জনগণ এসব জঙ্গিকে আশ্রয় দেয় না।

মাদকদ্রব্য ধ্বংস অনুষ্ঠানে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন বিজিবির মহাপরিচালক মেজর জেনারেল সাফিনুল ইসলাম (এনডিসি, পিএসসি), দক্ষিণ-পশ্চিম রিজিওনের অতিরিক্ত মহাপরিচালক আইনুল মোর্শেদ খাঁন পাঠান, খুলনা সেক্টর কমান্ডের উপমহাপরিচালক আরশাদুজ্জামান, চুয়াডাঙ্গা ১ আসনের সংসদ সদস্য সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার, চুয়াডাঙ্গা ২ আসনের সাংদ আলী আজগর টগর ও চুয়াডাঙ্গা ৬ বিজিবির পরিচালক ইমাম হাসান।

অনুষ্ঠান শেষে ২০১৭ সালের ৩০ এপ্রিল থেকে চলতি বছরের ১২ এপ্রিল পর্যন্ত বিজিবির হাতে আটক হওয়া ভারতীয় বিভিন্ন প্রকারের ২১ হাজার ৩২ বোতল মদ, ১ লাখ ৫৪ হাজার ৪০৯ বোতল ফেনসিডিল, ১১৫৫ কেজি গাঁজা, ২ কেজি ৪৯৪ গ্রাম হেরোইন, ১৯ হাজার ৮০১ পিস ইয়াবা, ২ লাখ ৮৪ হাজার ৭৬৬ পিস নেশা জাতীয় ট্যাবলেট, ৪৪ হাজার ৫৮৩ প্যাকেট পাতার বিড়ি, ৫০০ কেজি ডলোমাইন পাউডার, ২৯ কেজি কার্বাইড, ৪ হাজার ৬২০টি নেশা জাতীয় ইনজেকশন ও ৪ কেজি জট তামাক ধ্বংস করা হয়।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here