উত্তর কোরিয়া বলেছে, সম্প্রতি যে ক্ষেপণাস্ত্র মহড়া চালানো হয়েছে তা ছিল নিয়মিত ও দেশের নিরাপত্তা রক্ষার জন্য সামরিক প্রশিক্ষণ; এ মহড়া কোনো দেশকে লক্ষ্য করে চালানো হয় নি।

উত্তর কোরিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অজ্ঞাত এক কর্মকর্তা বিবৃতির মাধ্যমে একথা জানিয়েছেন। দেশটির সরকারি বার্তা সংস্থা কেসিএনএ গতকাল (বুধবার) এ খবর দিয়েছে।

গত ৪ মে ক্ষেপণাস্ত্র মহড়া চালায় উত্তর কোরিয়া। দেশটির সর্বোচ্চ নেতা কিম জং উন ওই মহড়া পর্যবেক্ষণ করেন। মহড়ায় বিভিন্ন ধরনের ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবহার করা হয় এবং এর মধ্যে অন্তত একটি স্বল্প পাল্লার ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ছিল। মার্কিন ভারপ্রাপ্ত প্রতিরক্ষামন্ত্রী প্যাট্রিক শানাহান গতকাল কংগ্রেসে শুনানির সময় বলেছেন, উত্তর কোরিয়া রকেট ও ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণ করেছে।

২০১৭ সালের নভেম্বর মাসে আন্তঃমহাদেশীয় ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা করার পর এই প্রথম উত্তর কোরিয়া ক্ষেপণাস্ত্র মহড়া চালালো। এর আগে আমেরিকা ও উত্তর কোরিয়ার মধ্যে পরমাণু আলোচনা কার্যত ব্যর্থ হয়েছে। আমেরিকা চাইছে কোনো শর্ত ছাড়াই উত্তর কোরিয়া তার পরমাণু কর্মসূচি বন্ধ করুক কিন্তু পিয়ংইয়ং তাতে রাজি নয়।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here