ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিয়ে অবৈধভাবে গত বৃহস্পতিবার লিবিয়া থেকে ইতালি যাওয়ার পথে অভিবাসীবাহী নৌকাডুবিতে নিহতদের মধ্যে সিলেটেরেই ছয় যুবক রয়েছে।

তারা হলেন- মৌলভীবাজারের কুলাউড়ার বাসিন্দা, সিলেট জেলা ছাত্র লীগের সাবেক সভাপতি শাহরিয়ার আলম সামাদের ছোট ভাই আহসান হাবিব শামীম (১৯) ও তার শ্যালক কামরান আহমদ মারুফ (২৩), ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলার কটালপুর এলাকার মুয়িদপুর গ্রামের হারুন মিয়ার ছেলে আব্দুল আজিজ (২৫), একই গ্রামের মন্টু মিয়ার ছেলে আহমদ (২৪) ও সিরাজ মিয়ার ছেলে লিটন (২৪)। এছাড়া ওই গ্রামের নিহত আরেকজনের পরিচয় নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

শনিবার রাত ১টার দিকে শাহরিয়ার আলম সামাদ তার ভাই ও শ্যালক নিহত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, প্রায় ২ মাস আগে তার ভাই ও শ্যালক দেশ ছাড়ে।

এ দিকে নিহত ফেঞ্চুগঞ্জের আজিজের ভাই মফিজুর রহমান ওই উপজেলার চারজন নিহত হওয়ার বিষয়টি সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছেন। তিনি জানান, শনিবার দুপুর ৩টার দিকে তিউনিসিয়া উপকূল থেকে বেঁচে যাওয়া তার চাচা মুয়িদপুর গ্রামের দিলাল ফোন করে ওই চার জনের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

প্রসঙ্গত, গত ৯ মে বৃহস্পতিবার ভূমধ্যসাগরে নৌকাডুবিতে অন্তত ৬০ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। বেঁচে ফেরা অভিবাসীদের ভাষ্যমতে, নৌকাটিতে ৫১ জন বাংলাদেশি ছাড়াও তিনজন মিশরিয় এবং মরক্কো, শাদ ও আফ্রিকার অন্যান্য কয়েকটি দেশের নাগরিক ছিল।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here