দেশে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির ঐতিহ্য বজায় রেখে জাতীয় উন্নয়নে যথাযথ ভূমিকা পালন করতে ধর্ম, বর্ণ ও মত নির্বিশেষে সবার প্রতি সোমবার আহ্বান জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ।

তিনি বলেন, ‘প্রতিটি ধর্মের মূল বাণী হলো মানবকল্যাণ। আমি বিশ্বাস করি, এই অস্থির ও অসহিষ্ণু বিশ্বে মানবতা ও শান্তি প্রতিষ্ঠায় বুদ্ধের মতাদর্শ খুব গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারে।’

বৌদ্ধদের সর্ববৃহৎ ধর্মীয় উৎসব বুদ্ধ পূর্ণিমা উপলক্ষে বঙ্গভবনে আয়োজিত এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের সদস্যদের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময়কালে রাষ্ট্রপতি এসব কথা বলেন।

রাষ্ট্রপতি হামিদ ও তার স্ত্রী রাশিদা খানম অতিথিদের স্বাগত জানান এবং তাদের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন।

রাষ্ট্রপতি আশা প্রকাশ করেন, বৌদ্ধ সম্প্রদায় ঐতিহ্য এবং প্রভু বুদ্ধের অমর আদর্শ ধারণ করে দেশের সার্বিক উন্নয়নে তাদের প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখবে।

তার মতে, গৌতম বুদ্ধের বাণী- অহিংসা পরম ধর্ম- এখনো সমাজের জন্য প্রযোজ্য।

ধর্মবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ আবদুল্লাহ, বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী, বৌদ্ধ ধর্মীয় নেতা সুনন্দাপ্রিয় ভিক্ষু, জিনারক্ষিতা ভিক্ষু, বুদ্ধানন্দ ভিক্ষু, সাবেক মন্ত্রী দিলীপ বড়ুয়া, আওয়ামী লীগের উপ-দপ্তর সম্পাদক এবং প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারি ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া প্রমুখ অনুষ্ঠানে অংশ নেন।

রাষ্ট্রপতির সংশ্লিষ্ট সচিবরা এ সময়  উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে বৌদ্ধ ধর্মীয় নেতারা ফুলের তোড়া উপহার দিয়ে রাষ্ট্রপতি হামিদকে শুভেচ্ছা জানান।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here