পূর্ব নির্ধারিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে মজুরি কমিশন ও বকেয়া বেতন-ভাতাসহ বিভিন্ন দাবিতে সোমবার থেকে দেশজুরে অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘট পালন করছে রাষ্ট্রায়াত্ত পাটকল শ্রমিকরা।

খুলনা-যশোর অঞ্চলের পাটকল শ্রমিকলীগের আহ্বায়ক মো. মুরাদ হোসেন বলেন, শ্রমিকরা প্রতিদিন বিকাল ৪টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত সড়ক ও রেলপথ অবরোধ করে রাখবে।

পাটখাতে প্রয়োজনীয় অর্থবরাদ্দ, বকেয়া মজুরি-বেতন পরিশোধ, মজুরি কমিশন কার্যকর ও প্রতি সপ্তাহের মজুরি প্রতি সপ্তাহে প্রদানসহ ৯ দফা দাবিতে পাটকল শ্রমিকলীগের ডাকে দীর্ঘদিন শ্রমিকরা রাজপথে আন্দোলন করছেন।

এর আগে আলীম জুট মিলের সিবিএ সভাপতি সাইফুল ইসলাম লিটু জানান, খুলনা অঞ্চলের রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকল শ্রমিকদের ১২ সপ্তাহের মজুরি এবং কর্মচারীদের চার মাসের বেতন বকেয়া রয়েছে।

তিনি আরও বলেন, অর্ধাহারে-অনাহারে পরিবার নিয়ে তাদের দিন কাটছে। এ অবস্থায় তাদের আন্দোলন করা ছাড়া কোনো বিকল্প নেই। পাওনা টাকা না পাওয়া পর্যন্ত তাদের আন্দোলন অব্যাহত থাকবে বলেও জানান তিনি।

এদিকে শ্রম প্রতিমন্ত্রী মুন্নুজান সুফিয়ান রাজধানীতে এক অনুষ্ঠানে বলেন, শ্রমিকদের মজুরি পরিশোধে আগামী সপ্তাহের মধ্যে পদক্ষেপ নেয়া হবে। কিন্তু দাবি বাস্তবায়িত না হওয়ায় রাজপথের আন্দোলন অব্যাহত রেখেছে পাটকল শ্রমিকরা।

প্রসঙ্গত, গত ৮ মে বাংলাদেশ পাটকল করপোরেশনের (বিজেএমসি) শ্রমিক ও কর্মচারী ইউনিয়নের (সিবিএ) কার্যালয়ে পাটকল শ্রমিকলীগ ও সিবিএ ও নন সিবিএ’র বৈঠকে এ ধর্মঘটের ঘোষণা দেয়া হয়।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here