আগের ম্যাচেই চ্যাম্পিয়ন্স লিগে বিদায় ঘটেছে। সেই হতাশায় প্রলেপ হওয়ার মতো জয় হয়ত নয়, তবে বার্সেলোনা মৌসুমজুড়ে জারি রাখা ঝলক লা লিগায় আরেকবার দেখিয়ে গেটাফেকে হারিয়েছে।

লিগ শিরোপা আগেই নিশ্চিত করে ফেলা বার্সা ঘরের মাঠে গেটাফেকে ২-০ গোলে হারিয়েছে।

ঘরের মাঠে রোববার বল দখলের লড়াইয়ে এগিয়ে থাকলেও গেটাফের রক্ষণে তেমন জোড়াল আক্রমণ করতে পারছিলো না বার্সেলোনা। যে কারণে ১২তম মিনিটে উল্টো গোল হজমের শঙ্কায় পড়েছিল ভালভার্দের শিষ্যরা। তবে স্প্যানিশ ফরোয়ার্ড হোর্হে মোলিনা বার্সেলোনার দ্বিতীয় পছন্দের গোলরক্ষক ইয়াসপের সিলেসেনকে একা পেয়েও ক্রসবারের উপর দিয়ে উড়িয়ে মারলে বেঁচে যায় স্বাগতিকরা। এদিকে ২৭তম মিনিটে কাতালানদের জালে বল জড়িয়ে আনন্দে মেতেছিল গেটাফের মোলিনা। তবে ভিআরের সাহায্য নিয়ে অফসাইডের বাঁশি বাজান রেফারি। শেষ পর্যন্ত অবশ্য ৩৯তম মিনিটে কাঙ্ক্ষিত গোল পেয়ে যায়। ডান দিক থেকে ফ্রি কিক নিয়েছিলেন মেসি। সে সময় মাথা ছুঁইছিলেন জেরার্ড পিকে। তবে গোলরক্ষক ঝাঁপিয়ে ঠেকিয়ে দেন। কিন্তু শেষ রক্ষা হয়নি। আলগা বল ফাঁকায় পেয়ে জালে জড়িয়ে আনন্দে মাতেন আর্তুরো ভিদাল।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই ব্যবধান দ্বিগুন করার সুযোগ হাতছাড়া করেছিল বার্সেলোনা। সে সময় ফিলিপে কৌতিনহোর পাস পেয়ে কয়েক গজ দূর থেকে গোলরক্ষক বরাবর শট নেন মালকম। এদিকে ৮৭তম মিনিটে স্বাগতিক সমর্থকদের হতাশ করেন মেসি। গোলরক্ষককে একা পেয়ে জালে বল জড়াতে পারেননি এ আর্জেন্টিনা ফরোয়ার্ড। এর দুই মিনিট পর অবশ্য অতিথিদের ভুলে ব্যবধান ২-০ করে বার্সা। ডিফেন্ডারদের মধ্যে দিয়ে মেসি ডি-বক্সে ঢুকতে গেলে বল একজনের পায়ে লেগে চলে যায় ডানে কার্লেস আলেনার পায়ে। আর্জেন্টাইন তারকার উদ্দেশে ফিরতি পাস বাড়ান স্প্যানিশ মিডফিল্ডার আলেনা। তা ঠেকাতে গিয়ে উল্টো নিজেদের জালে ঠেলে দেন টোগোর ডিফেন্ডার জেন দাকোনাম। এরপর আর কোন দল গোলের দেখা না পেলে এক ম্যাচ পর জয়ে ফেরার আনন্দ নিয়ে মাঠ ছাড়ে আগেই লা লিগা শিরোপা নিশ্চিত করা ভালভার্দের শিষ্যরা।

এ জয়ে ৩৭ ম্যাচে ৮৬ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের শীর্ষেই থেকে গেল বার্সেলোনা। ৭৫ পয়েন্ট নিয়ে আছে দ্বিতীয় স্থানে অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদ। রিয়াল মাদ্রিদ ৬৮ পয়েন্ট নিয়ে আছে তিন নম্বরে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here