আবু জায়েদ রাহি পাঁচ উইকেট নিলেও পল স্টার্লিংয়ের সেঞ্চুরি আর উইলিয়াম পোর্টারফিল্ডের ব্যাটে লড়াইয়ের পূঁজিই পেয়েছিল আয়ারল্যান্ড। তবে সেটা যে এই ব্যাটিং উইকেটে বেশ মামুলি তা দেখিয়ে দিল বাংলাদেশের টপ অর্ডার। প্রথম তিন ব্যাটসম্যানের ফিফটিতে আইরিশদের দেওয়া ২৯৩ রানের লক্ষ্য বাংলাদেশ পেরিয়েছে ৪২ বল হাতে রেখে। জিতেছে ৬ উইকেটে। আগেই ফাইনাল নিশ্চিত করায় আপাত গুরুত্বহীন ম্যাচেও দাপট দেখিয়েছে মাশরাফি মর্তুজার দল।

দলকে জেতাতে ৬৭ বলে সর্বোচ্চ ৭৬ রান করেন লিটন দাশ। ৫৩ বলে ৫৭ রান করেন তামিম ইকবাল। ওপেনিং জুটিতেই এই দুজন তুলেন ১১৭ রান। তিনে নেমে সাকিব খেলছিলেন চনমনে। কিন্তু ৫১ বলে ৫০ করার পর পীঠের চোটে মাঠ ছাড়তে হয় তাকে।

এ ত্রিদেশীয় সিরিজে এখন পর্যন্ত আগে ব্যাটিংয়ের সুযোগ হয়নি বাংলাদেশের। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দুই ম্যাচেই লক্ষ্য ছিল নাগালে। তিনশ রানের কাছাকাছি সংগ্রহ গড়ে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়েছিল আয়ারল্যান্ড। সেই চ্যালেঞ্জ দাপটের সঙ্গেই না জিতে নিল বাংলাদেশ। শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত এক ছন্দে খেলে ৪২ বল বাকি থাকতে সহজেই হারাল আইরিশদের।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

আয়ারল্যান্ড: ৫০ ওভারে ২৯২/৮ (স্টার্লিং ১৩০, ম্যাককলাম ৫, বালবার্নি ২০, পোর্টারফিল্ড ৯৪, ও’ব্রায়েন ৩, অ্যাডায়ার ১১, উইলসন ১২, ডকরেল ৪, ম্যাককার্থি ১* আবু জায়েদ ৫/৫৮, রুবেল ১/৪১, সাইফ ২/৪৩, মোসাদ্দেক ০/৩২, সাকিব ০/৬৫, মাশরাফি ০/৪৭)

বাংলাদেশ: ৪৩ ওভারে ২৯৪/৪ (তামিম ৫৭, লিটন ৭৬, সাকিব ৫০ আহত অবসর, মুশফিক ৩৫, মাহমুদউল্লাহ ৩৫*, মোসাদ্দেক ১৪, সাব্বির ৭*; অ্যাডায়ার ১/৫২, ম্যাককার্থি ১/৬১, লিটল ০/৬৭, র্যানকিন ২/৪৮, ডকরেল ০/৫৭)

ফল: বাংলাদেশ ৬ উইকেটে জয়ী

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here