মৌসুমের শেষটা এমন ফিকে হবে তা কি আদৌ জানতেন রিয়াল কোচ জিনেদিন জিদান? জানতেন কি রিয়াল সমর্থকরা? হয়তো তারা ভাবতেই পারছেন না। জয় দিয়ে হলে সমর্থকদের হয়তো ভালোই লাগত। কিন্তু বাস্তবতা তো মেনে নিতেই হবে। তা আর হলো না। সেখানে নিজেদের মাঠে নিজেদের দর্শকের সামনে রিয়াল বেতিসের কাছে ২-০ ব্যবধানে হেরে গেল রিয়াল মাদ্রিদ। ব্যর্থতার বৃত্তে ঘেরা মৌসুমের শেষটাও হলো তাই হতাশার। লা লিগায় শেষ রাউন্ডে রিয়াল বেতিসের কাছে ঘরের মাঠে হেরে গেছে প্রতিযোগিতার সফলতম দলটি।

সান্তিয়াগো বের্নাবেউয়ে রোববার স্থানীয় সময় দুপুরে ২-০ গোলে হেরেছে জিনেদিন জিদানের দল। জানুয়ারিতে লিগে প্রথম পর্বের দেখায় বেতিসের মাঠে শেষ মুহূর্তের গোলে ২-১ ব্যবধানে জিতেছিল রিয়াল। সে অভিজ্ঞতা থেকেও নেয়নি শিক্ষা।

স্পেনের শীর্ষ লিগে শেষ দুই রাউন্ডেই হারল রিয়াল। গত সপ্তাহে রিয়াল সোসিয়েদাদের মাঠে ৩-১ গোলে হেরেছিল মাদ্রিদের দলটি।

ম্যাচের শুরুতে অধিকাংশ সময় বল দখলে রাখার পাশাপাশি আক্রমণে আধিপত্য করা বেতিস ২৮তম মিনিটে এগিয়ে যেতে পারত। তবে স্প্যানিশ ডিফেন্ডার মার্ক বার্ত্রার দূরপাল্লার বুলেট গতির শট শেষ মুহূর্তে কোনোমতে হাত ছুঁইয়ে কর্নারের বিনিময়ে ঠেকান গোলরক্ষক কেইলর নাভাস।

ধীরে ধীরে গুছিয়ে ওঠা রিয়াল পাঁচ মিনিট পর প্রথম উল্লেখযোগ্য সুযোগ পায়। তবে পেনাল্টি স্পটের কাছে ফাঁকায় বল পেয়ে করিম বেনজেমার সময় নিয়ে নেয়া শট পোস্টে লাগে। পরের মিনিটে জিওভানি লো সেলসোর চিপ শট দারুণ দক্ষতায় নাভাস ঠেকিয়ে দিলে আবারও বেঁচে যায় স্বাগতিকরা।

৬১তম মিনিটে বের্নাবেউকে স্তব্ধ করে দিয়ে এগিয়ে যায় বেতিস। মাঝমাঠ থেকে অনেকটা আচমকা এক আক্রমণে সতীর্থের পাস ছোট ডি-বক্সের মুখে পেয়ে জোরালো শটে গোলটি করেন স্প্যানিশ ফরোয়ার্ড লোরেন মোরোন।

৬৮তম মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ হতে পারতো। তবে আর্জেন্টাইন মিডফিল্ডার লো সেলসোর ডি-বক্সের বাইরে থেকে নেয়া জোরালো শট ঝাঁপিয়ে ঠেকান নাভাস।

ব্যবধান বাড়তে অবশ্য দেরি হয়নি। ৭৫তম মিনিটে দারুণ গোছানো এক আক্রমণে স্কোরলাইন ২-০ করেন পিএসজি থেকে ধারে আসা হেসে রদ্রিগেস। জুনিয়র ফিরপোর ছোট পাস ছোট ডি-বক্সে পেয়ে প্রথম ছোঁয়ায় জালে বল পাঠান রিয়াল মাদ্রিদের সাবেক এই ফরোয়ার্ড।

মার্চে দ্বিতীয় মেয়াদে কোচ হয়ে আসা জিদানের অধীনে এ পর্বে ১১ ম্যাচ খেলে ছয়টিতে জয়শূন্য রইলো রিয়াল যার মধ্যে চারটিতেই হার। তবে ঘরের মাঠে আগের পাঁচ ম্যাচে জিতেছিল তারা। এবার সেখানেও মিলল তেতো স্বাদ।

এবারের আসরে এটা তাদের দ্বাদশ পরাজয়। ৩৮ ম্যাচে ২১ জয় ও পাঁচ ড্রয়ে ৬৮ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে থেকে লিগ শেষ করল রিয়াল মাদ্রিদ।

শনিবার লেভান্তের মাঠে ২-২ গোলে ড্র করা আথলেটিকো মাদ্রিদ ৭৬ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে থেকে মৌসুম শেষ করেছে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here