কুষ্টিয়ায় শহরের আবাসিক হোটেলে শিক্ষিকা ধর্ষণ মামলায় প্রধান শিক্ষককে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত।

মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে কুষ্টিয়ার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মুন্সী মো. মশিয়ার রহমান এ রায় দেন।

একই সাথে ধর্ষককে ১ লাখ টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দেওয়া হয়।

দণ্ডপ্রাপ্ত শরিফুল ইসলাম মেহেরপুর জেলার মুজিবনগর উপজেলার আম্রকানন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, ২০১৬ সালে ১৩ মে আম্রকানন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শরিফুল ইসলাম ও একই বিদ্যালয়ের খ্রিস্টান ধর্ম শিক্ষিকাকে নিয়ে নিবন্ধন পরীক্ষায় অংশ নিতে কুষ্টিয়া শহরে যান। শহরের বড় বাজারে আল আমিন হোটেলে মামা-ভাগিনা পরিচয় দিয়ে পাশাপাশি দুটি কক্ষ ভাড়া নেন। সকাল সাড়ে ৭টার দিকে শরিফুল ওই শিক্ষিকার কক্ষে প্রবেশ করে জোরপুর্বক ধর্ষণ করে ফেলে রেখে পালিয়ে যায়। পরে হোটেলের স্টাফরা অসুস্থ অবস্থায় ওই শিক্ষিকাকে উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে। এ ঘটনায় ওই শিক্ষিকা বাদী হয়ে কুষ্টিয়া মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন। দীর্ঘ বিচার কাজ শেষে আজ এই রায় দেওয়া হয়।

কুষ্টিয়া নারী ও শিশু আদালতের পিপি অ্যাডভোকেট আকরাম হোসেন দুলাল রায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here