তাজিকিস্তানের একটি উচ্চ নিরাপত্তার কারাগারে দাঙ্গায় তিনজন কারারক্ষীসহ কমপক্ষে ৩২ জন নিহত হয়েছে। তাজিকিস্তানের বিচার মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানিয়েছে। খবর বিবিসির।

মন্ত্রণালয় তাদের বিবৃতিতে জানিয়েছে, ইসলামিক স্টেট (আইএস)-এর একদল সদস্য গার্ডদের হত্যা করে তাদের সঙ্গী অভিযুক্ত ব্যক্তিদের মুক্ত করে। এসময় মুক্তি পাওয়া এসব বন্দি অন্য কারাবন্দিদের ওপর হামলা চালায়। পরে গার্ডরা গুলি চালালে ২৪ জন কারাবন্দি নিহত হয়।

ওই কারাগারে দেড় হাজার বন্দি ছিলেন। কারাগারটি রাজধানী দুশানবে থেকে পূর্বে ভাখদাত শহরে অবস্থিত। গত ছয় মাসের মধ্যে এটি দেশটির কারাগারে দ্বিতীয় প্রাণঘাতী দাঙ্গার ঘটনা।

তাজিকিস্তানের বিচার মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, রোববার ওই দাঙ্গা শুরু হয়। আইএসের জঙ্গিরা পাঁচজন কারাবন্দিকে হত্যা করার পর অন্যদের জিম্মি করে ও গুলি চালাতে শুরু করে।

বন্দিদের মধ্যে কয়েকজন রাজনৈতিক বন্দিও ছিলেন বলে জানিয়েছে তাজিকিস্তানের বিচার মন্ত্রণালয়। তারা জানায়, নিহত কারাবন্দিদের মধ্যে নিষিদ্ধ ঘোষিত ইসলামিক রেঁনেসা পার্টি অব তাজিকিস্তান (আইআরপিটি)-র দুজন সদস্যও রয়েছেন। ওই দলটির সব নেতা হয় নির্বাসনে আছে না হয় জেলে আছে বলে জানিয়েছে বিচার মন্ত্রণালয়।

ওই হামলায় আর কে কে নিহত হয়েছেন তা এখনও অস্পষ্ট। তবে হামলাকারীদের একজনের নাম বেখরুজ গুলমুরুদ বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। বেখরুজের বাবা গুলমুরুদ খালিমভ তাজিক স্পেশাল ফোর্সের একজন সদস্য ছিলেন। যিনি পরে আইএসে যোগ দিয়ে সিরিয়া যান এবং সেখানেই তার মৃত্যু হয়।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here