স্মিথ ও ওয়ার্নার ফেরায় বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়া বেশি শক্তিশালী হয়েছে বলে মনে করেন স্টিভ ওয়াহ। আইপিএলে ছড়ি ঘুরিয়েছেন ওয়ার্নার, স্মিথও মন্দ করেননি। বিশ্বকাপের আগে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচে ভালোই দেখালেন স্মিথ। তিন ম্যাচের দুটিতেই সেঞ্চুরির (৮৯ ও ৯১) সুবাস ছড়িয়ে বিশ্বকাপে প্রতিপক্ষ দলগুলোকে স্মিথ যেন ভয়ংকর বার্তা দিলেন। স্টিভ স্মিথ ও ডেভিড ওয়ার্নারের দলে ফেরাটা আসন্ন বিশ্বকাপে প্রতিপক্ষের দলগুলোর জন্য একটা ‘অমঙ্গলের লক্ষণ’ বলে বিশ্বাস করেন অস্ট্রেলিয়ার সাবেক অধিনায়ক স্টিভ ওয়াহ।

১১ বারের বিশ্বকাপ আসরে অস্ট্রেলিয়াই জিতেছে পাঁচটি শিরোপা। ১৯৯৯ থেকে ২০০৭, টানা তিন আসরে চ্যাম্পিয়ন হয়ে জিতেছে হ্যাটট্রিক শিরোপা। বর্তমান চ্যাম্পিয়নও তারা। গত বিশ্বকাপের পর নানাভাবে শক্তির বিচারে কিছুটা দূর্বল হয়ে পড়া অজিরা বিশ্বকাপের আগে ঠিকই গর্জন দিয়ে উঠেছে। এবারও তারা মাঠে নামবে ট্রফি জিততেই।

ভারতের মাটিতে ঐতিহাসিক সিরিজ জয় ও পাকিস্তানকে ধবলধোলাই করে সবশেষ ৮ ম্যাচের সবকটিতে জিতে ফিরে পেয়েছে আত্মবিশ্বাস। জয়ে ফেরার পাশাপাশি দলে ফিরেছেন স্মিথ-ওয়ার্নারও। এই দুই তারকার উপস্থিতি অস্ট্রেলিয়াকে অনেক বেশি শক্তিশালী বানিয়েছে বলে মনে করেন ওয়াহ। সরাসরি বলেই দিয়েছেন সব দলকেই অস্ট্রেলিয়াকে নিয়ে চিন্তায় থাকতে হবে,

‘বাকি দলগুলো অস্ট্রেলিয়ার সামর্থ্য সম্পর্কে জানে। তবে সর্বশেষ ১২ মাসে অস্ট্রেলিয়া দলে অনেক অশান্তি ছিল। তবে তা এখন শেষ হয়েছে। আমাদের সেরা ক্রিকেটার স্মিথ ও ওয়ার্নারকে আমরা দলে নিয়েছি। সব দলকেই অস্ট্রেলিয়া নিয়ে চিন্তা করতে হবে।’

চ্যাম্পিয়নস ট্রফির পর ২২ ম্যাচে জিতেছিল মাত্র চারটিতে, তবে ভারত ও পাকিস্তান সিরিজে যেভাবে ঘুরে দাঁড়িয়েছে অস্ট্রেলিয়া! অস্ট্রেলিয়ার পাশাপাশি ফেবারিট হিসেবে স্টিভ ওয়াহ ভারত ও ইংল্যান্ডের কথাও বললেন,

‘তাদের ফর্ম খারাপ ছিল। কিন্তু শেষ আটটি ম্যাচে জয় পেয়েছে দল এবং এখন তারা স্মিথ ও ওয়ার্নারকে পেয়েছে। এই দলটা অনেক দূর পর্যন্ত যাবে। ইংল্যান্ড সবচেয়ে বেশি শিরোপা প্রত্যাশী। শেষ কয়েক বছর দুর্দান্ত খেলেছে তারা। এর পরেই অস্ট্রেলিয়া ও ভারতকে রাখব।’

অস্ট্রেলিয়ার বিশ্বকাপ স্কোয়াডঃ

অ্যারন ফিঞ্চ (অধিনায়ক), জ্যাসন বেহ্রেন্ড্রফ, অ্যালেক্স ক্যারি (উইকেটরক্ষক), নাথান কোল্টার-নিল, প্যাট কামিন্স, উসমান খাজা, নাথান লায়ন, শন মার্শ, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, জাই রিচার্ডসন, স্টিভ স্মিথ, মিচেল স্টার্ক, মার্কাস স্টয়নিস, ডেভিড ওয়ার্নার ও অ্যাডাম জাম্পা।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here