ঘরের মাঠে বিশ্বকাপের জন্য তৈরি করা জার্সিতে ১৯৯২ সালের স্মৃতি ফিরিয়ে আনল ইংল্যান্ড। সেবারই সর্বশেষ বিশ্বকাপের ফাইনালে খেলেছিল দলটি। আর বিশ্বকাপে সেবারই প্রথম যুক্ত হয় রঙিন জার্সি।

মঙ্গলবার রাতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নিজেদের বিশ্বকাপ জার্সি প্রকাশ করে ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড।

তবে নতুন বিশ্বকাপ জার্সি প্রকাশ করে তোপের মুখেও পড়তে হয়েছে ইংল্যান্ডকে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অনেক দর্শক সরাসরি বলেছেন, এ জার্সি পছন্দ হয়নি তাদের।

ইংল্যান্ড সাধারণত টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট খেলে লাল জার্সিতে। ওয়ানডে ক্রিকেট খেলে গাড়ো নীল রঙের জার্সি পরে। তবে ঘরের মাঠে হতে যাওয়া বিশ্বকাপে তারা খেলবে উজ্জ্বল আকাশি-নীল জার্সিতে।

এবারের বিশ্বকাপে অন্যতম ফেভারিট বলা হচ্ছে ইংলিশদের। ইয়ান মরগানের দলও প্রত্যয়ী ট্রফি উঁচিয়ে ধরতে। জার্সিতে ১৯৯২ সালে সর্বশেষ ফাইনালের স্মৃতি ফিরিয়ে কি তবে এবারো ফাইনাল খেলার বার্তা দিতে চাইল ইংল্যান্ড?

সেটি হলে মোটও দোষের কিছু নয়। কিন্তু বিপত্তিটা বাঁধল অন্য জায়গায়। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে জার্সির ছবি প্রকাশ করে ইংল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ডের পক্ষে সমর্থকদের কাছে জানতে চাওয়া হয় কেমন লেগেছে।

সমর্থকদের কাছে থেকে যে বিপুল সংখ্যক রিপ্লাই এসেছে টুইটারে, তা দেখে ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ডের মোটেও খুশি হওয়ার উপায় নেই।

ইংল্যান্ডের নতুন জার্সির রং বেশির ভাগ সমর্থকেরই পছন্দ হয়নি। কেউ কেউ তো সরাসরি বলেছেন এটা বিরক্তিকর। কেউ কেউ আবার ভারতের জার্সির রঙের সঙ্গে মিলে গেছে বলে টিপ্পনী কেটেছে। কেউ কেউ বলছেন এটা ৯০ এই দশকের জন্য মানানসই ছিল। এই সময়ের জন্য নয়।

বাংলাদেশের বিশ্বকাপ জার্সি নিয়েও বিতর্ক হয়েছিল একার। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দর্শকদের প্রতিক্রিয়ার পর বদলে ফেলা হয় জার্সির ডিজাইন।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here