কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী বৃহস্পতিবার বিকালে পরাজয় স্বীকার করে নিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হতে যাওয়া নরেন্দ্র মোদিকে অভিনন্দন জানিয়েছেন।

৪৮ বছর বয়সী রাহুল আমেথি সংসদীয় এলাকায় বিজেপি নেত্রী স্মৃতি ইরানির কাছেও হেরে গেছেন।

বৃহস্পতিবার ভারতের জাতীয় নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা করা হচ্ছে। আনুষ্ঠানিকভাবে ফল ঘোষণা না হলেও ৬৮ বছর বয়সী মোদি ফের যে ক্ষমতায় আসছেন তা নিশ্চিত হয়ে গেছে।

এর আগের নির্বাচনে কংগ্রেস ৪৪ আসনে জয়লাভ করলেও এবার ৫২টি আসনে এগিয়ে রয়েছে।

রাহুল বলেন, ‘জনতা সবকিছুর মালিক।’ দলের নেতা-কর্মীদের ভয় না পাওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

রাহুল গান্ধী কেরালা থেকেও প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। যেখানে তিনি এগিয়ে আছেন। তবে দলের পরাজয়ে তার নেতৃত্ব নিয়ে প্রশ্ন উঠছে।

কংগ্রেস সভাপতি বলেন, ‘স্মৃতি ইরানিকে শুভেচ্ছা। জনগণের রায়কে আমি শ্রদ্ধা করি।’

গত পাঁচ বছর ধরে স্মৃতি ইরানি নিয়মিত সংসদীয় এলাকা আমেথি পরিদর্শন করেছেন। নির্বাচনী প্রচারণায় আমেথিতেই সময় পার করেছেন। অন্যদিকে কংগ্রেস প্রধান রাহুল পুরো ভারতজুড়ে নির্বাচনী ব্যস্ততার কারণে সেখানে খুব বেশি যেতে পারেননি।

রাহুল আমেথিকে অবহেলা করছেন বলেও বিজেপির পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়।

নির্বাচনের আগে মাত্র একবার আমেথি যান রাহুল। মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার আগে তিনি সেখানে পথসভা করেন। তার বোন প্রিয়াংকা গান্ধী এবং মা সোনিয়া গান্ধী বেশ কয়েকবার আমেথি পরিদর্শন করেন।

কংগ্রেস ১৯৯৮ সাল ছাড়া গত তিন দশকে এই আসনে হারেনি।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here