কাঁধের অস্ত্রোপচার করানোর জন্য মেক্সিকো থেকে দেশে ফিরছিলেন আর্জেন্টাইন কিংবদন্তি দিয়াগো ম্যারাডোনা। কিন্তু নিজ দেশে ফিরেই পড়লেন বড় বিপদে। বিমানবন্দরে আটকানো হয় তাকে। সাবেক বান্ধবী রোকিও অলিভিয়ার করা মামলায় শেষ পর্যন্ত গ্রেপ্তারই করা হয় এ ফুটবল কিংবদন্তিকে। এমন সংবাদ প্রকাশ পেয়েছে আর্জেন্টিনার স্থানীয় গণমাধ্যমে।

ছয় বছরের সম্পর্কের পর গত ডিসেম্বরে অলিভিয়ার সঙ্গে বিচ্ছেদ হয় ম্যারাডোনার। সাবেক বান্ধবীর আইনি ও অর্থনৈতিক চাহিদায় বিরক্ত হয়েই সম্পর্ক ছেদ করেন তিনি। আর এ কারণে ক্ষেপে গিয়ে সান মিগুয়েল পারিবারিক আদালতে ৬.৩ মিলিয়ন ডলারের ক্ষতিপূরণ মামলা দেন অলিভিয়া।

আর্জেন্টাইন সংবাদমাধ্যম জানায়, মেক্সিকোর দ্বিতীয় বিভাগের দল দোরাদস দি সিনালোয়ার কোচ ম্যারাডোনা মেক্সিকো থেকে নিজ দেশে ফেরার পর বুয়েন্স আয়ার্স বিমানবন্দরে তাকে আটকায় কর্তৃপক্ষ। সাবেক বান্ধবীর মামলায় এরপর তাকে  গ্রেফতার করা হয়।

আগামী ১৩ জুন মামলার শুনানি হবে। তবে সেখানে ম্যারাডোনাকে উপস্থিত না থাকলেও চলবে, সেক্ষেত্রে তার আইনজীবীকে অবশ্যই থাকতে হবে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here