বাণিজ্যিক একটি ফ্লাইট দেরি করিয়ে যাত্রীদের দুর্ভোগের কারণ হওয়ার পর পদত্যাগ করেছেন মেক্সিকোর পরিবেশ ও প্রাকৃতিক সম্পদমন্ত্রী জোসেফা গঞ্জালেস ব্লাঙ্কো ওরটিজ মেনা। এই নিয়ে এক সপ্তাহের কম সময়ের মধ্যে প্রেসিডেন্ট আন্দ্রেস মানুয়েল লোপেজ ওবরাদোর সরকারের দ্বিতীয় শীর্ষ কর্মকর্তা তার পদ ছাড়লেন।

মেক্সিকোর প্রেসিডেন্টের অফিস থেকে জানানো হয়েছে, পরিবেশ ও প্রাকৃতিক সম্পদ মন্ত্রী পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন। পরে শনিবার একটি ভাষণে লোপেজ ওবরাদোর বলেন, তিনি ওই পদত্যাগপত্র গ্রহণ করেছেন।

প্রেসিডেন্টের অফিস থেকে প্রকাশিত ওই পদত্যাগপত্রে দেখা গেছে, শুক্রবার কাজের কারণে একটি জায়গায় যাওয়ার কথা ছিল গঞ্জালেস ব্লাঙ্কো। কিন্তু তার কারণে ওই বিমানের যাত্রী ও ক্রুদের দেরি হয়েছে।

গঞ্জালেস তার পদত্যাগপত্রে লিখেছেন, এটা নিয়ে আত্মপক্ষ সমর্থনের কোনো সুযোগ নেই। মেক্সিকোর সত্যিকারের পরিবর্তনের জন্য প্রয়োজন সমতা ও বিচারের মূল্যবোধের সঙ্গে সামঞ্জস্যতা। কারোরই অগ্রাধিকার ও একার কোনো সুবিধা থাকা উচিত নয়, এমনিক নিজের কাজ করার জন্যও; কেউই সংখ্যাগরিষ্ঠের কল্যাণের ঊর্ধ্বে হতে পারেন না।

মেক্সিকান প্রেসিডেন্ট তার বক্তব্যে বলেন, তিনি গঞ্জালেস ব্লাঙ্কোর সঙ্গে ফ্লাইট দেরি করানোর বিষয়ে কথা বলেছেন। এসময় গঞ্জালেস ব্লাঙ্কো দুঃখ প্রকাশ করেছেন বলেও জানান তিনি।

লোপেজ ওবরাদোর বলেন, কী ঘটেছে তা তিনি আমাকে সততার সঙ্গে বলেছেন এবং আমার কাছে তার পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন। আমি তা গ্রহণ করেছি।

এর আগে গত মঙ্গলবার পদত্যাগ করেন মেক্সিকোর সামাজিক নিরাপত্তা ইন্সটিটিউটের প্রধান জার্মান মার্টিনেজ। তিনি অভিযোগ করে বলেন, লোপেজ ওবরাদোরের অর্থমন্ত্রীর নির্দেশে বাজেট কর্তন ও লোক ছাঁটাইয়ের কারণে গরিবদের স্বাস্থ্যসেবা ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here