৩৩ রাউন্ড পার করার পর জয় পাওয় ভুলে গেছে জুভেন্তাস। ইন্টার মিলান, তুরিনোর সঙ্গে ড্রয়ের পর রোমার মাঠে ২-০ গোলে হারে তারা।

গত ম্যাচে আটলান্টার সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করে টানা আট বারের লিগ জয়ীরা। লিগের শেষ ম্যাচে তারা ২-০ তে হারলো সাম্পদোরিয়ার কাছে।

শেষ পাঁচ ম্যাচে জয় না পাওয়ার তিক্ততা নিয়ে মৌসুম পার করলেন ম্যাস্সিমিলিয়ানো অ্যালেগ্রি। তাঁর অধীনে এবার জুভেন্টাস জিতলো ক্লাব ইতিহাসের ৩৫তম লিগ শিরোপা। তবে বিদায়ী ম্যাচটি আনন্দের ছিলো না অ্যালেগ্রির জন্য। হার দিয়ে জুভেন্টাসর সঙ্গে পাঁচ বছরের সম্পর্কের ইতি টানলেন এ ইতালিয়ান। এ সময়ে তাঁর হাত ধরে জুভেন্টাস জেতে পাঁচটি লিগ শিরোপা, চারটি ইতালিয়ান কোপা ও দুইটি সুপার কোপা।

রোববার বিশ্রামে ছিলেন ক্রিশ্চিয়ানো। ছিলেন না আরেক ফরোয়ার্ড মারিও মানজুকিচও। তাতে ম্যাচজুড়ে আক্রমণভাগে বেশ ভুগতে হয় জুবিদের।

জুবিদের জালে বল জড়ানোর প্রথম সুযোগ কিন্তু পেয়েছিল সাম্পদোরিয়া। কিন্তু ৩৪তম মিনিটে ফাবিও কুয়াইয়েরেল্লার ভলি অল্পের জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট হলে বেঁচে যায় জুভেন্টাস। চার মিনিট পর গোলমুখে ফাঁকায় বল পেয়ে পাওলো দিবালার টোকা রুখে দেন ডিফেন্ডার সালা।

বিরতির পর অনেকটা সাদা মাটা ফুটবল খেলে জুভেন্টাস-সাম্পদোরিয়া। তারপরও শেষদিকে আক্রমণে কিছুটা এগিয়ে থেকে দুটি গোল পেয়ে যায় স্বাগতিকরা। ৮৪তম মিনিটে ডি-বক্সে বল পেয়ে একজনকে কাটিয়ে কোনাকুনি শটে দলকে এগিয়ে দেন ফরাসি ফরোয়ার্ড দুফাইল। আর যোগ করা সময়ে দারুণ ফ্রি-কিকে জয় নিশ্চিত করেন ইতালিয়ান ফরোয়ার্ড কাপরারি। তাতে হতাশ হয় জুভেন্টাস।

রোববারের হারে জুভেন্টাস অধ্যায়টা কোচ মাস্সিমিলিয়ানো আল্লেগ্রির শেষ হল হতাশায়।

এ হারে ৯০ পয়েন্ট নিয়ে লিগ শেষ করল জুভেন্টাস। ৭৯ পয়েন্ট নিয়ে রানার্সআপ নাপোলি।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here