জাপানের রাজধানী টোকিওর একটি পার্কের কাছে বাসের জন্য অপেক্ষা করছিলো একদল স্কুলশিশু। এ সময় এক আগন্তুক ছুরি নিয়ে তাদের ওপর হামলা চালায়। এ ঘটনায় বারো বছর বয়সী এক মেয়েসহ তিনজন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছে কমপক্ষে আরো ১৮ জন। আহতদের মধ্যে ১৬ জনই স্কুলছাত্রী।

এমন এক সময়ে এ ঘটনা ঘটলো যখন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প টোকিও সফরে রয়েছেন। এ ঘটনায় তিনি দুঃখ প্রকাশ করেছেন এবং হতাহতদের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন।

মঙ্গলবার সকালে ওই হামলা চালানো হয়। তবে কী কারণে ওই হামলার ঘটনা ঘটেছে তা এখনও পরিষ্কার নয়। টোকিওর দক্ষিণাঞ্চলীয় কাওয়াসাকি শহরের ওই হামলার ঘটনায় জড়িত সন্দেহে একজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তার বয়স ৫০য়ের কোঠায়। শিশুদের ওপর হামলার পর সে নিজের ঘাড়ে ও গলায় ছুরি নিয়ে হামলা চালায়। এই আঘাত জনিত কারণে পরে সে মারা যায়।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যমে বলা হয়েছে, পুলিশ ওই হামলার পর ঘটনাস্থলে পৌঁছে দুটি ছুরি উদ্ধার করেছে। কাওয়াসাকি দমকল বিভাগের এক মুখপাত্র সংবাদ সংস্থা এএফপিকে বলেন, মঙ্গলবার স্থানীয় সময় সকাল ৭টা ৪৪ মিনিটে একটি জরুরি ফোনকল আসে। ওই ফোনকল থেকে জানা যায়, বেশ কয়েকজন স্কুল শিক্ষার্থী ছুরিকাঘাতে আহত হয়েছে। খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে ছুটে যায় পুলিশ ও উদ্ধারকারী টিম। তারা হতাহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসেন।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here