ঢাকায় ঘটে যাওয়া একটি দুর্ধর্ষ ব্যাংক ডাকাতির কাহিনী নিয়ে নির্মিত হয়েছে ওয়েব সিরিজ ‘মানি হানি’! তানিম নূর এবং কৃষ্ণেন্দু চট্টোপাধ্যায়-এর যৌথ পরিচালনায় ঘটনাবহুল এই ওয়েব সিরিজটির ট্রেলার প্রকাশ হলো মঙ্গলবার।

৩২ বছর বয়সী ডিভোর্সি শাহরিয়ার কবির, কাজ করেন ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে। তার জীবন জুয়া, পার্টি, নারী ও মদে পূর্ণ। প্রিয়ংবদ শাহরিয়ার কথা বলে সহজেই যেকোনো নারীকে প্রেমে ফেলে দিতে পারে। জীবনে তার সবকিছুই ঠিকভাবে চলছিলো যতোক্ষণ না পর্যন্ত শেয়ার বাজারে বিশাল এক বিপর্যয় নেমে আসে এবং উলটে যায় তার জীবন-পাশার ঘুঁটি। আর এখান থেকেই শুরু বহুল প্রতীক্ষিত ওয়েব সিরিজ ‘মানি হানি’র গল্প।

দেড় মিনিটের ট্রেলারে জম জমাট সংলাপের মাধ্যমে উঠে আসে ব্যাংক ডাকাতি ও তার পরের ঘটনা। বিশেষ করে ট্রেলারে শ্যামল মাওলার কণ্ঠে ‘সামনে পুলিশ, পেছনে দেয়াল!’-সংলাপটি শুনেও দর্শক গল্পের গভীরতা আঁচ করতে পারবেন। গল্প বলার ধরণ ও সিনেম্যাটোগ্রাফিতে ওয়েব সিরিজটিতে দারুণ চমক থাকবে, এমন আভাসই আছে ট্রেলার জুড়ে।

ওয়েব সিরিজে প্রধান চরিত্রগুলোতে অভিনয় করেছেন শ্যামল মাওলা, মোস্তাফিজুর নূর ইমরান, লুৎফর রহমান জর্জ, সুমন আনোয়ার, নিশাত প্রিয়ম এবং নাজিবা বাশার।

‘মানি হানি’র ক্রিয়েটিভ ডিরেক্টর হিসেবে আছেন নির্মাতা অমিতাভ রেজা। স্ক্রিপ্ট প্যানেলে কাজ করেছেন চারজন। কৃষ্ণেন্দু ও তানিম ছাড়াও বাকি দুজন হলেন লিওন ও তানভীর আহসান। দুই নির্মাতার এই সিরিজে ডিওপি দুজন। একজন তানভীর আহসান এবং অন্যজন ইশতিয়াক পাবলু।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here