ইউরোপা লিগের ফাইনালে নগর প্রতিদ্বন্দ্বী আর্সেনালকে ৪–১ গোলের ব্যবধানে হারিয়ে শিরোপা জিতলো চেলসি। আজারাবাইজানের বাকু অলিম্পিক স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হয় লন্ডনের দুই ক্লাব আর্সেনাল আর চেলসি।

বাকুতে ফাইনালের শুরু থেকে আধিপত্য বিস্তার করে খেলতে থাকে আর্সেনাল। তবে গোল মিসের মহড়ায় প্রথমার্ধে গোলের দেখা পায়নি গানাররা। কিন্তু দারুণ ফুটবল খেলে ভয়ের সৃষ্টি করেছিল ব্লুজারদের রক্ষণে।

লাকাজেথ–অবমেয়ংরা বল জালে জড়াতে ব্যর্থ হলে প্রথমার্ধ শেষ হয় গোল শূণ্য ড্র দিয়েই। আর সেখানেই যেন ইউরোপা লিগ জয় আর্সেনালের জন্য স্বপ্ন হয়েই রয়ে গেল। দ্বিতীয়ার্ধের শুরু থেকে যেন অন্য এক চেলসি মাঠে নামলো।

 ৪৯ মিনিটে ডেডলক ভাঙেন অলিভিয়ের জিরু। এমারসনের ক্রস থেকে মাথা ছুঁইয়ে গানার গোলরক্ষক পিটার চেককে পরাস্ত করেন এই ফরাসি স্ট্রাইকার।

এরপর ৬০ মিনিটে হ্যাজার্ডের ক্রস থেকে স্কোর লাইন ২-০ করেন পেদ্রো। ৬৫ মিনিটে পেনাল্টি থেকে দলের ২য় ইউরোপা লিগ শিরোপা অনেকটাই নিশ্চিত করে ফেলেন হ্যাজার্ড।

অবশ্য ৬৯ মিনিটে অ্যালেক্স ইয়োবি’র দুর্দান্ত শটে ম্যাচে ফেরার ইঙ্গিত দেয় আর্সেনাল। এর ঠিক ৩ মিনিট পর জিরুর সাথে বোঝাপড়ায় নিজের দ্বিতীয় গোল করেন হ্যাজার্ড। নিশ্চিত করেন দলের দ্বিতীয় ইউরোপা লিগ শিরোপা।

চেলসির সাথে চুক্তি আর নবায়ন না করায় এটিই ব্লুজের হয়ে হ্যাজার্ডের শেষ ম্যাচ। জোর গুঞ্জন আগামী মৌসুমে রিয়াল মাদ্রিদে যোগ দিচ্ছেন এই বেলজিয়ান।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here