বিশ্বকাপের তৃতীয় ম্যাচে আজ (১ জুন) মুখোমুখি হচ্ছে ১৯৯৬ বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন শ্রীলঙ্কা ও গেল আসরের রানার্সআপ নিউজিল্যান্ড। কার্ডিফে বাংলাদেশ সময় বিকাল সাড়ে ৩টায় মাঠে গড়াবে দুই দলের প্রথম ম্যাচটি।

বিশ্বকাপ আসরে তিনটি ফাইনাল খেলেছে শ্রীলঙ্কা। ’৯৬ বিশ্বকাপ যেতা দলটি ২০০৭ ও ’১১ বিশ্বকাপে টানা ফাইনাল খেলে কিন্তু দুটি ফাইনালেই রানার্সআপ হয়ে সন্তুষ্ট থাকতে হয় লঙ্কানদের। আর ছয় বার বিশ্বকাপের সেমিফাইনালিস্ট নিউজিল্যান্ড প্রথমবারের মত ফাইনাল খেলে গেল আসরে (২০১৫ বিশ্বকাপ)। সেবার মেলবোর্নে অস্ট্রেলিয়ার কাছে হারে ট্রফি অধরাই থেকেই যায় কিউইদের।

কার্ডিফে আজকের ম্যাচে নামার আগে দুই দল বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত ১০ বার মুখোমুখি হয়েছে। মুখোমুখি লড়াইয়ে ৬ ম্যাচে জয় পায় লঙ্কানরা। বিপরতে ৪ ম্যাচ জিতে ব্ল্যাক ক্যাপরা। যদিও বর্তমান বিবেচনায় শ্রীলঙ্কার থেকে এগিয়ে নিউজিল্যান্ড।

দারুণ ছন্দে রয়েছেন কিউই বোলার ট্রেন্ট বোল্ট, লুকি ফার্গুসনরা। সঙ্গে রস টেইলর, কেন উইলিয়ামসন, হেনরি নিকোলসের মতো অভিজ্ঞরা রয়েছেন দলে। প্রস্তুতি ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে পেয়েছিল দাপুটে জয়। শেষ দশ ম্যাচের ছয়টি ম্যাচে জয় পেয়েছে নিউজিল্যান্ড।

অন্যদিকে শ্রীলঙ্কার সময়টা খুব একটা ভালো যাচ্ছে না। কখনো ভালো ক্রিকেট খেলছে তো কখনো খেলছে না। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে শেষ তিন ওয়ানডেতে হেরেছে তারা। আবার চলতি বছর মাত্র একটি ম্যাচে জয় পেয়েছে লঙ্কানরা। তবে দলে রয়েছেন থিসারা পেরেরা, লাসিথ মালিঙ্গা, কুশল মেন্ডিস, অ্যাঞ্জেলা ম্যাথিউজের মতো ক্রিকেটার। তাই প্রথম ম্যাচে নিজেদের সেরাটা দিতে প্রস্তুত শ্রীলঙ্কা।

বিশ্বকাপে নিউজিল্যান্ড স্কোয়াড : কেন উইলিয়ামসন (অধিনায়ক), মার্টিন গাপটিল, হেনরি নিকোলস, রস টেইলর, টম লাথাম (উইকেটরক্ষক), কলিন মুনরো, টম ব্লান্ডেল, কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম, মিচেল স্যান্টনার, জিমি নিশাম, ইশ সোধি, ম্যাট হেনরি, লুকি ফার্গুসন, টিম সাউদি ও ট্রেন্ট বোল্ট।

শ্রীলঙ্কা স্কোয়াড : দিমুথ করুনারত্নে (অধিনায়ক), লাসিথ মালিঙ্গা, অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস, থিসারা পেরেরা, কুশল পেরেরা, ধনঞ্জয়া ডি সিলভা, কুশল মেন্ডিস, ইসুরু উদানা, মিলিন্দা সিরিবর্ধনে, আভিস্কা ফার্নান্দো, জীবন মেন্ডিস, লাহিরু থিরিমান্নে, জেফরি ভ্যান্ডারসে, নুয়ান প্রদীপ, সুরঙ্গা লাকমল।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here