নেইমারের বিরুদ্ধে পুলিশের কাছে ধর্ষণের অভিযোগ দায়ের করেছেন এক ব্রাজিলিয়ান নারী। তবে অভিযোগকারীর নাম-পরিচয় খোলাসা করেনি দেশটির পুলিশ বিভাগ।

বার্তা সংস্থা এপি অভিযোগের বিবরণ ও নথিপত্র হাতে পেয়েছে। শনিবার (১ জুন) তারা জানিয়েছে, ওই নারী অভিযোগ করেছেন যে, গত ১৫ মে রাতে ফ্রান্সের প্যারিসের একটি হোটেলে ঘটনাটি ঘটে। তবে মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হওয়ায় তখন সেখানে কোনো অভিযোগ করেননি তিনি। দেশে ফিরে শুক্রবার (৩১ জুন) ব্রাজিলের সাও পাওলোতে তিনি পুলিশের দ্বারস্থ হন।

এই ঘটনাকে অবশ্য বানোয়াট ও ফাঁদ হিসেবে উল্লেখ করছেন প্যারিস সেন্ট জার্মেই (পিএসজি) ফরোয়ার্ড নেইমার। তার বাবা ও এজেন্ট সিনিয়র নেইমার গণমাধ্যমের কাছে জানিয়েছেন, অভিযোগকারী নারী নেইমারকে ব্ল্যাকমেইলের চেষ্টা করছেন। আর হোটেলে যা হয়েছিল তা দুজনের সম্মতিতেই ঘটেছিল। সম্পর্ক ভেঙে যাওয়ায় এমন অভিযোগ তুলেছেন ওই নারী বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি।

এদিকে দেশটির পুলিশ বিভাগের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, অভিযোগের প্রেক্ষিতে এরই মধ্যে তদন্ত শুরু করেছেন তারা। তার অংশ হিসেবে ওই নারীর শারীরিক পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হবে।

সাম্প্রতিক সময়টা মোটেও ভালো যাচ্ছে না নেইমারের। চোট এবং শৃঙ্খলাভঙ্গ তার নিত্যসঙ্গী হয়ে দাঁড়িয়েছে। এই দুই কারণে সবশেষ মৌসুমে বেশ কয়েক বার মাঠের বাইরে চলে যেতে হয়েছে তাকে। পেয়েছেন নিষেধাজ্ঞাও। গেল সপ্তাহে ব্রাজিল দলের নেতৃত্ব থেকেও সরিয়ে দেওয়া হয়েছে তাকে।

নেতৃত্ব হারানোর পর কোপা আমেরিকাকে সামনে রেখে চলা ব্রাজিলের অনুশীলন ক্যাম্পে হাঁটুতে চোট পেয়েছিলেন নেইমার। তবে তা গুরুতর হয়নি। দ্রুতই সুস্থ হয়ে গেছেন তিনি। ফিরেছেন মাঠে। তার রেশ কাটতে না কাটতেই এবার ধর্ষণের অভিযোগ আনা হয়েছে তার বিরুদ্ধে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here