ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়ার ম্যাচটা শুরুতেই ছড়ালো রোমাঞ্চ। ক্যারিবীয়দের বাউন্সারে বিপর্যস্ত হয়ে টপ অর্ডারে ধস নেমেছিলো অজিদের। এক পর্যায়ে পাকিস্তানের মতো অল্পতে গুটিয়ে যাওয়ার সম্ভাবনাও দেখা দিয়েছিলো। ৩৪ রানে বিদায় নিয়েছিলেন ৪জন। সেই অস্ট্রেলিয়াই স্টিভেন স্মিথের দৃঢ়তায় ও পেসার নাথান কোল্টার নাইলের বিধ্বংসী ব্যাটিংয়ে ২৮৮ রানের লড়াকু পুঁজি পেয়েছে ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে।

 ৩৮ রানে চার উইকেট পড়ে যাওয়াতে স্মিথ নিজের রানের চেয়ে জুটি গড়ার দিকে বেশি মনোযোগ দিলেন। তাইতো নিজে ক্রিজে থেকে সতীর্থকে দিয়ে খেলানোর চিন্তা করেন। এতে কাজও হয়েছে।

পঞ্চম উইকেটে স্টোইনিসের সঙ্গে ৪১ রানের জুটি গড়েন তিনি। যেখানে স্মিথের অবদান ১৮ ও স্টোইনিসের ২৩ রান। ষষ্ঠ উইকেটে উইকেটরক্ষক অ্যালেক্স ক্যারের সঙ্গে ৬৮ রানের জুটি গড়েন স্মিথ। এখানেও স্মিথ ছিলেন কম সক্রিয়। ৪৫ রানই করেন ক্যারি।

সপ্তম উইকেটে টেল এন্ডারে নামা নাথান কোল্টার নাইলের সঙ্গে গড়েন ১০২ রানের মহামূল্যবান জুটি। এখানেও নিজে উইকেট আগলে কোল্টারকে রান সচল রাখার কাজ বুঝিয়ে দেন। এই জুটির ৩০ রান এসেছে স্মিথের ব্যাট থেকে। নেতৃত্ব হারালেও দলের স্কোর বাড়ানোর সুন্দর পরিকল্পনাতে তিনিই অজিদের মধ্যে সেরা। ৭৭ বলে ৫টি বাউন্ডারিতে ক্যারিয়ারের ২০তম হাফসেঞ্চুরি তুলে নেন স্মিথ। সঙ্গী কোল্টার নাইলও ক্যারিয়ার সেরা ইনিংস খেলে অভিষেক হাফসেঞ্চুরি তুলে নেন। ১০৩ বলে ৭টি চারে শেষ পর্যন্ত ৭৩ রানে আউট হন স্মিথ। থমাসের বলে দুর্দান্ত ক্যাচ ধরে স্মিথকে ফেরান কটরেল।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here