বিশ্বকাপের ১৩তম ম্যাচে আফগানিস্তানকে সাত উইকেটে হারিয়ে টানা তিন জয় তুলে নিল নিউজিল্যান্ড। নিজেদের খেলা সবকয়টি ম্যাচ জিতে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষস্থান ধরে রেখেছে গতবারের রানার্সআপ দলটি। অন্যদিকে টানা তিন হারে পয়েন্ট টেবিলের তলানিতে রয়েছে আফগানিস্তান।

শনিবার টন্টনে টস জিতে ফিল্ডিং নেয় নিউজিল্যান্ড। জিমি নিশাম ও লকি ফার্গুসনের দুর্দান্ত বোলিংয়ে তারা ৪১.১ ওভারে ১৭২ রানে অলআউট করে তারা আফগানিস্তানকে। কেন উইলিয়ামসনের অপরাজিত হাফসেঞ্চুরিতে ৩২.১ ওভারে ৩ উইকেটে ১৭৩ রান করে ব্ল্যাক ক্যাপরা।

এর আগে টস হেরে ব্যাটি করতে নামে রশিদ খানরা। আফগানদের ভালো সূচনা এনে দেন দুই ওপেনার হযরতউল্লাহ জাজাই ও নূর আলী জাদরান। ৬৬ রান আসে তাদের ব্যাট থেকে। জাজাই ৩৪ রান করে আউট হন। আরেক ওপেনার নূর আলী ৩১ রান করে লকি ফার্গুসনের বলে প্যাভিলিয়নে ফেরত যান।

এরপর রহমত শাহ (০) ও অধিনায়ক গুলবাদিন নাঈব ৪ রান করে দ্রুত বিদায় নিলে ৭০ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে আফগানিস্তান। ৪ উইকেটে ৮৪ রান তোলার পর বৃষ্টির কারণে খেলা বন্ধ হয়ে যায়। এর পর বৃষ্টি থামলে খেলা আবার শুরু হয়। এরপর ২২.২ ওভারে ৪ উইকেটে ৯৯ রান তোলার পর দ্বিতীয় দফায় বৃষ্টির কারণে খেলা বন্ধ হয়ে যায়।

বৃষ্টি শেষে আবার মাঠে নামলেও উইকেটের পতন থামাতে পারেনি আফগানিস্তান। হাসমতউল্লাহ শহীদি এক প্রান্ত আগলে রাখলেও সতীর্থরা ধারবাহিকভাবে ফিরতে থাকেন সাজঘরে।

উইকেটরক্ষক ইকরাম আলিখিল (২) ও রশিদ খান ফিরেন রানের খাতা খোলার আগে। শেষদিকে আফতাব (১৪) ও হামিদ হাসান (৭) নিয়ে ছোট ছোট জুটি বেধে দলকে দেড়শ রানের ঘর পার করার শহীদি। ফার্গুসনের বলে শেষ উইকেট হিসেবে সাজঘরে ফেরার আগে তিনি ৯৯ বলে ৯ চারে ৫৯ রান করেন। শেষ পর্যন্ত ৪১.১ ওভারে ১০ উইকেট হারিয়ে ১৭২ রান সংগ্রহ করে আফগানিস্তান।

আফগানদের ব্যাটিং লাইনআফ গুঁড়িয়ে দিয়েছেন মূলত জেমস নিশাম ও ফার্গুসন। দুইজনে মিলে নিয়েছেন ৯ উইকেট। ১০ ওভারে ৩১ রান দিয়ে ৫ উইকেট শিকার করেছেন নিশাম। ০.১ ওভারে ৩৭ রান দিয়ে ৪ উইকেট নিয়েছেন ফার্গুসন। বাকি উইকেটটি নিয়েছেন কলিন ডি গ্রান্ডহোম।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here