ঈদ উপলক্ষে মালেক আফসারী পরিচালনায় শাকিব খান অভিনীত চলচ্চিত্র ‘পাসওয়ার্ড’ অন্য সিনেমার নকল করে তৈরি করা নিয়ে নানা রকমের আলোচনা ও সমালোচনা বেড়েই চলেছে। এবার মালেক আফসারী নিজেই এই মুভি নিয়ে মুখ খুলেছেন। তার মতে এই ছবি কোনভাবেই নকল নয়, তা নিয়ে তিনি কিছু যুক্তি দিয়েছেন তার নিজের ফেসবুক ওয়ালে। পাঠকদের জন্য  সেটা হুবহু তুলে দেয়া হল।

“কপি
যারা পাসওয়ার্ড মুভি কপি কপি বলে চিল্লায়ে চিল্লায়ে মাথা খারাপ করছে তাদের উদ্দেশ্যে কিছু লজিক্যাল থিয়োরি উপস্হাপন করলাম যে পাসওয়ার্ড মুভি কোনো অবস্হায় কোরিয়ান মুভি দ্যা টার্গেট মুভির কপি নয়। (১ঃলজিক) পাসওয়ার্ড মুভির ডিউরশন ২ ঘন্টা ১৭ মিনিট,,, ওদিকে দ্যা টার্গেট মুভির ডিউরশন ১ঘন্টা ৩৭ মিনিট।। যদি পাসওয়ার্ড মুভি এটার কপি হতো তাহলে পাসওয়ার্ড ও ১ ঘন্টা ৩৭ মিনিটের হতো,,সুতরাং বলা যেতে পারে এটা কপি না(২ঃলজিক)পাসওয়ার্ড মুভিতে নায়িকা আছে,,,দ্যা টার্গেট মুভিতে নেই।।সুতরাং বলা যেতে পারে পাসওয়ার্ড মুভি কপি না।
(৩ঃ লজিক) পাসওয়ার্ড মুভি পেনড্রাইভ ও পাসওয়ার্ড নিয়ে তৈরি, দ্যা টার্গেট মুভিতে পেনড্রাইভের কোনো অস্তিত্ব নেই। সুতরাং বলা যেতে পারে পাসওয়ার্ড মুভি কপি না।(৪ঃলজিক) আমি দ্যা টার্গেট মুভির মূলভাব টা তুলে ধরছিঃ নায়ক ২ ভাই,একদিন নায়োকের ভাইয়ের কাছে কল আসে এক কর্মকর্তার থেকে,তো এরা ২জন সেখানে যায় গিয়ে দেখে কর্মকর্তা মৃত তাকে কেউ খুন করে গেছে,,তারপর নায়ককে ধাওয়া করে নায়ক আহত হয়ে রাস্তায় পরে থাকলে তাকে হসপিটালে ভর্তি করা হয়,,,তারপর যে ডক্টর নায়ককে দেখে তার স্ত্রীকে নায়কের ভাই কিডনাপ করে যাতে তার ভাইয়ের কিছু না হয়।তারপর নায়কের ভাইকে ভিলেন মেরে ফেলে,,তার বদলা নিতে ভিলেনকে মারে নায়ক,,,ব্যাস কাহিনি শেষ। এভাবে হযবরল ভাবে ১ ঘন্টা ৩৭ মিনিটে মুভিটা শপষ।আপনারা যারা পাসওয়ার্ড মুভি দেখেছেন তারা অবশ্যই দেখবেন যে কোনো অবস্হাতেই পাসওয়ার্ডের সাথে ওর গ্লপের মিল নাই।।।অনেকে যারা হেটার্স আছে #সুপারস্টার–শাকিব খানের তারা বলবে অমুক যায়গায় মিল আছে হাবি জাবি,,ভাই আমি তাদের উদ্দেশ্যে বলবো,,,,ধরেন আমি একটা গরুর রচনা লিখছি আমার ৫ বেঞ্চ পিছনো একজন সেও গরুর রচনা লিখছে,তো সে ২ পৃষ্ঠায় রচনাটা শেষ করেছে আর আমি ৪ পৃষ্ঠায় শেষ করেছি।।তো ভাই গরু নিয়ে ও কম লিখেছে আমি বেশি লিখেছি,,,তো এই রচনার মধ্যে গরুর ৪ পা ২ চোখ সেও লিখেছে আমিও লিখেছি,, তাই বলে এটা বলা যাবেনা আমি ওর কপি করছি।।*আমার এক বন্ধু আছে নাম আশরাফুল সে একটা শার্ট কিনছিলো নোলক মুভির পোস্টার বাহির হওয়ার আগে,,,পরিবর্তিতে দেখলাম ওর মতোই দেখতে শাকিব খান শার্ট পরে আছে নোলক মুভির পোস্টারে,, তাই বলে কি আপনারা বলবেন যে আশরাফুলের শার্ট কপি করে শাকিব খান পরেছে,,,মোটেও না এটা হয়ে যায়।।।।কপি কারে বলে আজ আপনাদের বুঝাবো,,,কপি হলো সাউথ ইন্ডিয়ান ইন্ডাস্ট্রির থ্রোলি প্রেমা মুভির রিমেক কলকাতা ইন্ডাস্ট্রিতে ফিদা মুভি,,যার ডায়লগ ও হুবহু,,, এইটারে বলে কপি,,,,,

#ধন্যবাদ, আশা করি সবাই বুঝতে পেরেছেন

(লেখাটি যার উনার নামটি
আমি মনে রাখতে পারি নাই।
sorry
ধন্যবাদ ভাই আপনাকে)”

অভিযোগ উঠেছে, দক্ষিণ কোরিয়ার একটি চলচ্চিত্রের নকল করে বানানো হয়েছে শাকিব খান অভিনীত ‘পাসওয়ার্ড’ ছবিটি। তবে নকল প্রমাণ করতে পারলে বড় অঙ্কের আর্থিক পুরস্কারের ঘোষণা দিয়েছিলেন এর নির্মাতা মালেক আফসারী।

এই ঈদে মুক্তি পাওয়ার পর দর্শকদের ভালো সাড়া পাচ্ছিল ছবিটি। তবে নির্মাণ সংশ্লিষ্টদের তৃপ্তি বেশিক্ষণ স্থায়ী হয়নি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে অনেকেই বলছেন- মালেক আফসারী পরিচালিত ছবিটির সঙ্গে ২০১৪ সালে নির্মিত দক্ষিণ কোরীয় ছবি ‘দ্য টার্গেট’ এর মিল খুঁজে পাচ্ছেন তারা।

প্রসঙ্গত, ‘পাসওয়ার্ড’ ছবিতে নায়কের ভূমিকায় থাকা শাকিব নিজেই ছবিটির অন্যতম প্রযোজক। নায়িকা হিসেবে রয়েছেন শবনম বুবলী।

গত ৫ জুন মালেক আফসারী নিজের ফেইসবুক পাতায় লিখেছিলেন, “যারা এত দিন প্রচার করেছে ‘পাসওয়ার্ড’ তামিল ছবি ‘ডায়নামিক’-এর নকল, তাদের জন্য আমার পুরস্কার ঘোষণা করা আছে। প্রমাণ দিয়ে ১০ লাখ টাকা নিয়ে যান।”

তিনি আরও বলেছিলেন, “আমি সব সময় বলে এসেছি, মৌলিক ছবি বানাবার মতো পণ্ডিত আমি নই। তার মানে এই নয়, একজন সুপারস্টারকে অপব্যবহার করব তামিল-তেলেগু ছবি নকল করে। এইসব ছবি দিয়ে এখন আর দর্শককে খুশি করা যাবে না। আমার নজর আরও ওপরে।”

তবে কোরিয়ান চলচ্চিত্রের নকল বলে সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড় চললেও এ বিষয়ে মালেক আফসারীর কোনো প্রতিক্রিয়া এখনও পাওয়া যায়নি।

এদিকে, ছবিটি দর্শকদের মাঝে দারুণ সাড়া ফেলেছে বলে দাবি আরেক প্রযোজক মোহাম্মদ ইকবালের। নকলের অভিযোগ অস্বীকার করে তিনি বলেন, নকলের অভিযোগ অসত্য। আমি ‘দ্য টার্গেট’ ছবিটি দেখেছি, সেখানে আমি কোনো নায়িকা দেখিনি, মিশা সওদাগরের মতো ভিলেন দেখিনি, চারটা গান দেখিনি। যেটুকু মিল আছে তা থাকতেই পারে। ১২টা সিনেমার উপর নির্ভর করে পৃথিবীর সব সিনেমার গল্প তৈরি হয়। এগুলো আসলে ‘পাসওয়ার্ড’ এর সফলতায় ঈর্ষাকাতর হয়ে কেউ এমন করছে।

তিনি আরও বলেন, সিনেমা হল মালিকদের বাঁচাতে ‘পাসওয়ার্ড’ নিয়ে এগিয়ে এসেছি। নতুন সপ্তাহে হল সংখ্যা বেড়ে ২০০টি প্রেক্ষাগৃহে চলবে ‘পাসওয়ার্ড’।

‘পাসওয়ার্ড’ ছবিতে শাকিব-বুবলী ছাড়াও চলচ্চিত্রটিতে অভিনয় করেছেন, ইমন, অমিত হাসান, মিশা সওদাগর প্রমুখ।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here