মার্কিন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জন বোল্টন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রশাসনে মতভেদ ও বিভক্তির জন্য বিদেশি শক্তি ও মূলধারার গণমধ্যমকে দায়ী করেছেন। ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের সিএফও নেটওয়ার্ককে দেয়া সাক্ষাৎকারে তিনি এ অভিযোগ করেন।

সাক্ষাৎকার গ্রহণকারী জন বাসি বোল্টনের কাছে জানতে চান- ইরান ও উত্তর কোরিয়া ইস্যুতে মার্কিন প্রশাসন কেন সাংঘর্ষিক ও পররস্পর-বিরোধী বিবৃতি দিচ্ছে। জবাবে বোল্টন মার্কিন প্রশাসনে বিভক্তি সৃষ্টির জন্য বিদেশি শক্তি ও মূলধারার গণমাধ্যমকে দায়ী করেন।

তিনি বলেন, “আমাদের বিশ্বাস করার বাস্তবিক কারণ রয়েছে যে- ইরান, উত্তর কোরিয়া, ভেনিজুয়েলা, রাশিয়া ও চীন সিদ্ধান্ত নিয়েছে মার্কিন প্রশাসন সম্পর্কে তারা ভুল তথ্য তুলে ধরবে এবং তারা দেখানোর চেষ্টা করবে যে, ট্রাম্প প্রশাসনে বিভক্তি রয়েছে।”

এরপর তিনি মার্কিন গণমাধ্যমের ওপর আক্রমণ করেন এবং দেশটির সাংবাদিকদেরকে ‘শ্রুতিলেখক’ বলে উল্লেখ করেন। বোল্টন বলেন, এসব সাংবাদিক সরকারের মধ্যকার বিভক্তির কথা ছড়াচ্ছেন। সাংবাদিক বাসি বোল্টনের কথার প্রতিবাদ করলেও বোল্টন তার অবস্থানে দৃঢ় থাকেন।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here