সৌদি আরবে দাতব্য তৎপরতা ও তহবিল সংগ্রহের চেষ্টা এবং সেসব অর্থ দেশে পাঠানোর জন্য অন্তত ১৫০ ফিলিস্তিনিকে আটক করেছে রিয়াদ সরকার। এসব ব্যক্তির ওপর নির্যাতনও চালানো হয়েছে। সৌদি আরবের স্বাধীন মানবাধিকার  সংস্থা প্রিজনার্স অব কনসায়েন্স এ তথ্য জানিয়েছে। আটক ফিলিস্তিনিরা সৌদি আরবে বসবাস করেন।

মানবাধিকার সংস্থাটি গত মঙ্গলবার কয়েকটি টুইটার পোস্টে জানিয়েছে, ১৫০ ফিলিস্তিনি এখন সৌদি আরবের কারাগারে মৃত্যুর মুখে। এর মধ্যে শুধু বন্দরনগরী জেদ্দা থেকে ৪০ ফিলিস্তিনিকে আটক করা হয়। প্রিজনার্স  অব কনসায়েন্স বলছে, আটকের সময় এবং তারপরে সৌদি গোয়েন্দা সংস্থার লোকজন বন্দী ফিলিস্তিনিদের সঙ্গে এমন ব্যবহার করেছে যাতে মানবাধিকার লঙ্ঘিত হয়।

টুইটার পোস্টে বলা হয়েছে, সৌদি নিরাপত্তা বাহিনী এসব ফিলিস্তিনির বাড়িতে রাতের বেলায় হানা দেয় এবং তাদেরকে আটকের আগে নারী ও শিশুদের এক কক্ষে আটকে রেখে তাদের কাছ থেকে মোবাইল কেড়ে নেয়া হয়।

আটক ব্যক্তিদের কয়েকজনের পরিচয় তুলে ধরেছে মানবাধিকার সংস্থাটি। তার মধ্যে রয়েছেন ব্যবসায়ী উসামা ফালাহি, হিশাম ফালাহি, মুহাম্মাদ বিন মাহফুজ, রিস বিন মাহফুজ ও সালেহ আবু কোশ। আটক ব্যক্তিদের সঙ্গে তাদের পরিবারের যোগাযোগ সম্পূর্ণ বিচ্ছিন্ন রাখা হয়েছে। পবিত্র রমজান মাস ও ঈদুল ফিতরের দিনেও তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব হয় নি।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here