ভারত-পাকিস্তানের ক্রিকেট লড়াই দেখার অপেক্ষায় গোটা বিশ্ব। আগামী রোববার চলতি বিশ্বকাপে প্রতিবেশি দেশ দুটি মুখোমুখি হবে। তার আগেই শুরু হয়েছে অনেক হিসাব-নিকাশ। আবার চলছে কথার লড়াইও। বিশ্বকাপের অফিসিয়াল সম্প্রচার সংস্থা স্টার স্পোর্টস এই ম্যাচকে ঘিরে তো অনেক আগেই শুরু করে দিয়েছে প্রচারণা। গত বিশ্বকাপে আলোচনা তৈরি করা ‘মওকা মওকা’ বিজ্ঞাপনকে আরও একটু মশলা দিয়ে নিয়ে এসেছে চ্যানেলটি! থেমে নেই পাকিস্তানও। দেশটির টেলিভিশন চ্যানেলে প্রচার করছে ভারতীয় বিমানসেনা অভিনন্দন বর্তমানকে নিয়ে তৈরি করা বিদ্রুপাত্মক প্রোমোশনাল। যিনি আটক হয়েছিলেন পাকিস্তানের হাতে। ঠিক সে সময় মুখ খুললেন ভারতের বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়ক দেব। বললেন অবশ্যই পাকিস্তানকে হারাবে বিরাট কোহলির দল।

ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে আগামী ১৬ জুন লড়বে ভারত-পাকিস্তান। এ মহারণ ঘিরে উত্তেজনা বেড়েই চলেছে দুই দেশের সীমান্তে। অনেকে তো এটাও বলছেন-বিশ্বকাপ চাইনা এই ম্যাচটা জিততে পারলেই হবে!

ময়দানি লড়াইয়ের আগে অবশ্য কাগজ-কলমের হিসাবে এগিয়ে ভারতই। বিশেষ করে সাম্প্রতিক সময়ে দুর্দান্ত খেলছে বিরাট কোহলির দল। যে কারণে চিরপ্রতিদ্বন্দি দুই দলের লড়াইয়ে কপিল দেব এগিয়ে রাখছে ভারতকে, ‘দেখুন, আমি বাস্তবতার নিরিখেই বলছি-পাকিস্তানের পক্ষে অবশ্যই জয় তুলে নেবে ভারতীয় দল। আবারও বলছি-পাকিস্তানকে অবশ্যই হারাবে ভারত! এখন বিরাট কোহলিরা দারুণ ক্রিকেট খেলছে। বলতে আপত্তি নেই যখন আমি ক্রিকেট খেলতাম- তখন পাকিস্তানকেই ফেভারিট বলা হতো। এখন দৃশ্যপট পাল্টে গেছে। এখন পাকিস্তানের থেকে অনেক ভালো দল ভারত।’

পাকিস্তানের বিপক্ষে মাঠে নামার আগে ভারতকে ভাবাচ্ছে শিখর ধাওয়ানের চোট। তবে কপিল দেব চোখ রাখছেন সামনেই। তিনি আশা করেন এ বাঁহাতির জায়গায় যে আসবে সেও সুযোগটা কাজে লাগাবে, ‘সত্যি বলতে কী বিশ্বকাপের মতো বড় টুর্নামেন্টে চোট-আঘাত নিয়ে সমস্যা থাকবেই। একটি ঘটনায় হতাশ হওয়ার কিছু নেই। আমরা আশা করা করছি ওর পরিবর্তে যাকে দলে নেওয়া হবে, সে সেটা সুযোগটা কাজে লাগাবে।’

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here