বললে অবাক হওয়ার উপায় নেই, ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে খেলছে বৃষ্টিই! সাত দিনের মধ্যে চতুর্থ ম্যাচ পরিত্যক্ত হলো বৃষ্টির কারণে। বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) নটিংহ্যামের ট্রেন্ট ব্রিজে ভারত ও নিউজিল্যান্ডের মধ্যকার হাই-ভোল্টেজ ম্যাচটিও ভেসে গেছে বৃষ্টিতে। ফলে সমৃদ্ধ হয়েছে বিশ্বকাপে ম্যাচ পরিত্যক্ত হওয়ার রেকর্ডটা। এর আগে ১৯৯২ ও ২০০৩ বিশ্বকাপে দুটি করে ম্যাচ পরিত্যক্ত হয়েছিল।

স্থানীয় সময় বিকাল ৩টায় (বাংলাদেশ সময় রাত ৮টা) মাঠ পরিদর্শনের পর ম্যাচ বাতিলের সিদ্ধান্ত জানান আম্পায়াররা। কেননা, আউটফিল্ড খেলার উপযোগী করতে আরও ঘণ্টা দেড়েক সময় লেগে যেত। ফলে এবারের আসরে আফগানিস্তান, অস্ট্রেলিয়া ও ইংল্যান্ড বাদে বাকি সাত দলের কোনো না কোনো ম্যাচ বৃষ্টির বাগড়ায় পরিত্যক্ত হলো।

আম্পায়ারদের ঘোষণার পর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় ভারতের দলনেতা বিরাট কোহলি জানান, ‘আউটফিল্ড পুরোপুরি ঠিকঠাক হয়নি। তাই আমি মনে করি, এটা একটা বিচক্ষণ সিদ্ধান্ত। দুটো দল (ভারত-নিউজিল্যান্ড), যারা নিজেদের আগের সব ম্যাচেই জিতেছে, তাদের জন্য এক পয়েন্ট খুব একটা খারাপ না। আমরা পয়েন্ট পাওয়াকে ভালোভাবেই নিচ্ছি।’

নিউজিল্যান্ডের অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন বলেন, ‘এখানে আমরা চারদিন ধরে রয়েছি এবং সূর্যের মুখ দেখিনি। তাই এমন ঘটনায় আমরা মোটেও বিস্মিত না। এমন পরিস্থিতি আদর্শ নয়। তবে কিছু সময় ফাঁকা পাওয়াটাও গুরুত্বপূর্ণ।’

ম্যাচ পণ্ড হওয়ায় ৪ ম্যাচে ৭ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষেই রইল নিউজিল্যান্ড। এক ম্যাচ কম খেলে ৫ পয়েন্ট নিয়ে ইংল্যান্ডকে টপকে তৃতীয় স্থানে উঠে এলো ভারত। ৪ ম্যাচে ৬ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে অস্ট্রেলিয়া।

এর আগে বিশ্বকাপের আরও তিনটি ম্যাচ পরিত্যক্ত হয়। প্রথমে শ্রীলঙ্কা-পাকিস্তান, এরপর দক্ষিণ আফ্রিকা-ওয়েস্ট ইন্ডিজ এবং গেল মঙ্গলবার বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কার ম্যাচ পণ্ড হয়। এতে বাংলাদেশ, উইন্ডিজ ও পাকিস্তানের মতো দলগুলো ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বিপরীতে লাভবান হয়েছে শ্রীলঙ্কা। কারণ সাম্প্রতিক সময়ে সেরা ছন্দে নেই দলটি। তবুও ৪ ম্যাচের মাত্র একটিতে জিতে তাদের পয়েন্ট ৪।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here