কয়েকদিন আগেই চেলসি ছেড়ে রিয়াল মাদ্রিদে যোগ দেওয়ার ব্যাপারটি নিশ্চিত করেছিলেন। শেষ পর্যন্ত বৃহস্পতিবার সান্তিয়াগো বার্নাব্যুর ক্লাবটিতে উপস্থিত প্রায় ৫০ হাজার সমর্থকদের সঙ্গে আনুষ্ঠানিকভাবে পরিচিত হয়ে নাম লেখালেন ইডেন হ্যাজার্ড। এরপরই বেলজিয়ামের এ মিডফিল্ডার নতুন ক্লাবটির হয়ে অনেক শিরোপা জয়ের স্বপ্নের কথা জানান।

বৃহস্পতিবার পরিবার নিয়ে বার্নাব্যুর ক্লাবটিতে এসেছিলেন হ্যাজার্ড। পরিচয় পর্ব শেষের পর এ মিডফিল্ডার অংশ নেন ফটোসেশনে। পরে জার্সিতে রিয়ালের লোগোতে চুমু দিয়ে ২৮ বছর বয়সী এই ফুটবলার বলেন, ‘রিয়ালের হয়ে খেলতে এবং অনেক শিরোপা জিততে আমি মুখিয়ে আছি। ছোট বেলা থেকেই আমার রিয়াল মাদ্রিদে খেলার স্বপ্ন আর আমি এই মুহূর্তটা উপভোগ করছি।’

রিয়ালে হ্যাজার্ডকে স্বাগত জানিয়েছে সভাপতি ফ্লোরেন্তিনো পেরেস বলেন, ‘হ্যাজার্ড, এখন তুমি সেখানে আছো যেখানে আসতে চেয়েছিলে। আজ তোমার জীবনের অন্যতম সেরা স্বপ্নটা পূরণ হলো। এখন তুমি রিয়াল মাদ্রিদের একজন খেলোয়াড় এবং এই ক্লাবের অংশ। বার্নাব্যু তোমার বাড়ি…প্রতিটি ম্যাচে সমর্থকরা তোমার পাশে থাকবে। তারা জানে যে তোমার ফুটবল বিশেষ কিছু। রিয়াল মাদ্রিদে স্বাগতম, তোমার বাড়িতে তোমাকে স্বাগতম।’

হ্যাজার্ডের সঙ্গে রিয়ালের চুক্তি ২০২৪ সালের ৩০ জুন পর্যন্ত। তবে তাকে টানতে কত খরচ হয়েছে বার্নাব্যুর ক্লাবটির তা কোন পক্ষই জানায়নি। তবে রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, তাকে পেতে ১০ কোটি ইউরো গুনতে হয়েছে ইউরোপের সফলতম ক্লাবটিকে।

এরআগে চেলসির জার্সিতে গত ৭ বছর দুর্দান্ত কেটেছিল হ্যাজার্ডের। ইংলিশ ক্লাবটির হয়ে ২০১৫ ও ২০১৭ সালে প্রিমিয়ার লিগ শিরোপা এবং একটি করে লিগ কাপ ও এফএ কাপ জেতেন তিনি। গত মৌসুমেই এ মিডফিল্ডার গোল করেন ১৬টি। এদিকে সতীর্থের গোলে অবদান রাখেন ১৫টিতে। এবার সেই কাজটিই আরও বেশি করে করার স্বপ্ন নিয়ে তিনি নতুন ঠিকানা গড়লেন রিয়ালে। বার্নাব্যুর সমর্থকরা এখন সেটাই এ মিডফিল্ডারের কাছ থেকে দেখার অপেক্ষায় রয়েছেন।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here