১৯৫০ বিশ্বকাপের পর শনিবার সাদা রঙের জার্সি পরে ঘরের মাঠে নামলো ব্রাজিল। প্রথমার্ধে গোল শুন্য থাকলেও দ্বিতীয়ার্ধে ফিলিপে কৌতিনহোর নৈপুণ্যে বলিভিয়ার জালে তিন তিনবার বল জড়াল সেলেসাওরা। তাতে কোপা আমেরিকার চলতি আসরের শুরুটা দুর্দান্ত হয়েছে তিতের শিষ্যদের।

১৯১৯ সালে কোপায় প্রথম শিরোপাটা সাদা রঙের জার্সিতেই জিতেছিল ব্রাজিল। শত বছর পর এবার ঘরের মাঠে সেই জার্সি পরেই সেই স্মৃতি ফিরিয়ে আনেতে চাই দলটি। যার শুরুটা অবশ্য শনিবার বলিভিয়াকে ৩-০ গোলে হারিয়ে করল দানি আলভেজের দল।

ম্যাচের প্রথমার্ধে ব্রাজিলকে আটকে রাখতে সক্ষম হয় বলিভিয়া। এতে গোলশূন্য থাকে প্রথম ৪৫ মিনিট। তবে বিরতির পর স্বরূপে ফিরে তিতের শিষ্যরা। তিন মিনিটের ব্যবধানে বলিভিয়ার জালে দুবার বল পাঠিয়ে ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নেয় প্রতিযোগিতার আটবারের শিরোপা জয়ীরা। আর শেষ দিকে দুর্দান্ত এক গোলে জয় নিশ্চিত করেন এভারতন।

ব্রাজিলের আক্রমণাত্মক ফুটবলে শুরু হয় কোপা আমেরিকার ৪৬তম আসরের মাঠের লড়াই। ম্যাচের শুরু থেকে প্রতিপক্ষের রক্ষণে প্রচন্ড চাপ তৈরি করে নেইমার বিহীন ব্রাজিল । প্রথম ১০ মিনিটে ভালো দুটি সুযোগও পেয়েছিল তারা; কিন্তু সাফল্যের দেখা মেলেনি। কাছ থেকে রবের্তো ফিরমিনো গোলরক্ষক বরাবর শট নেওয়ার পর অরক্ষিত চিয়াগো সিলভার হেডে বল পোস্ট ঘেঁষে চলে যায়।

দ্বিতীয়ার্ধের পঞ্চম মিনিটে অপেক্ষা শেষ হয় পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের। সফল স্পট কিকে দলকে এগিয়ে দেন বার্সেলোনা মিডফিল্ডার কুতিনহো। প্রথমার্ধে দারুণ খেলা রিশার্লিসনের শটে বল বলিভিয়ার মিডফিল্ডার আদ্রিয়ান জুসিনোর হাতে বল লাগলে ভিএআরের সাহায্যে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি।জয় দিয়ে শুরু নেইমার বিহীন ব্রাজিলের কোপা মিশন

তিন মিনিট পর আবারও গোল উদযাপনে মেতে ওঠে ব্রাজিল। এবার ডান দিক থেকে ফিরমিনোর দারুণ ক্রস ছোট ডি-বক্সে ফাঁকায় পেয়ে অনায়াসে হেডে দলের ও নিজের দ্বিতীয় গোলটি করেন কুতিনহো। ক্লাবের হয়ে মৌসুমটা ভালো কাটেনি তার। তবে কোপা আমেরিকার শুরুতেই জোড়া গোলে খারাপ সময় কাটিয়ে স্বরূপে ফেরার আভাস দিলেন ২৭ বছর বয়সী এই ফুটবলার। ৮৫তম মিনিটে দারুণ নৈপুণ্যে স্কোরলাইন ৩-০ করেন খানিক আগেই বদলি নামা এভারতন।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here