কারাগার প্রতিষ্ঠার পর সেই ব্রিটিশ আমল থেকে আজ পর্যন্ত একই মেন্যুতে সকালের নাস্তা খাচ্ছিল বাংলাদেশের কারাবন্দিরা। অবশেষে কারাবন্দিদের জন্য তৈরি হলো নতুন মেন্যু। আর এই নতুন মেন্যুতে যুক্ত হচ্ছে মুখরোচক কিছু খাবার।

কারাগার সূত্রে জানা যায়, কারাগার প্রতিষ্ঠার পর থেকে এ পর্যন্ত সকালের নাস্তায় একটি মেন্যু ছিল। মেন্যুটি হলো সকালের নাস্তায় একজন কয়েদি পাবে ১৪.৫৮ গ্রাম গুড় এবং ১১৬.৬ গ্রাম আটা (সমপরিমাণ রুটি)। একই পরিমাণ গুড়ের সঙ্গে একজন হাজতি পাবে ৮৭.৬৮ গ্রাম আটা (সমপরিমাণ রুটি)। তবে নতুন মেন্যু অনুযায়ী আজ রোববার থেকে তাদের সকালের নাস্তায় যুক্ত হচ্ছে মুখরোচক কিছু খাবার।

এ বিষয়টি নিশ্চিত করে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের জেলার মাহবুবুল ইসলাম গণমাধ্যমকে জানান, নতুন মেন্যুতে একই খাবার পাবেন কারাবন্দিরা। সপ্তাহে ২ দিন তারা পাবেন ভুনা খিচুড়ি, ৪ দিন সবজি-রুটি, বাকী ১ দিন হালুয়া-রুটি। রোববার সকাল থেকে এই মেন্যু কার্যকর হচ্ছে।

তিনি বলেন, নতুন এই মেন্যুর বিষয়টি জেনে কারাবন্দিরা আনন্দ প্রকাশ করেছে। এছাড়াও দীর্ঘ যুগের মেন্যু পরিবর্তন করে কারাবন্দিদের বিষয় মাথায় রেখে নতুন মেন্যু প্রণয়নের জন্য প্রধানমন্ত্রী সত্যি প্রশংসার দাবিদার।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here