এই বিশ্বকাপে প্রথম জয়ের দেখা পেলো দক্ষিণ আফ্রিকা। নিজেদের পঞ্চম ম্যাচ খেলতে নেমে তারা হারিয়েছে আফগানিস্তানকে। কার্ডিফের সোফিয়া গার্ডেনসে শনিবার ডাকওয়ার্থ লুইস পদ্ধতিতে তারা ১১৬ বল হাতে রেখে জিতেছে ৯ উইকেটে।

টস জিতে ফিল্ডিং নেয় দক্ষিণ আফ্রিকা। বৃষ্টির কারণে আফগানিস্তানের ইনিংস কিছুক্ষণ বন্ধ থাকলে ম্যাচ নির্ধারিত হয় ৪৮ ওভার করে। ৩৪.১ ওভারেই ১২৫ রানে অলআউট হয় আফগানরা। জবাবে প্রোটিয়ারা ২৮.৪ ওভারে ১৩১ রান করে ১ উইকেট হারিয়ে।

এর আগে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে দুই ওপেনার ব্যাট করছিলেন সাবলীল ভাবেই। ওপেনিং জুটিতে এলো ৩৯ রান। এ জুটি ভাঙেন কাগিসো রাবাদা। ফেরান হজরতউল্লাহ জাজাইকে। তবে আরেক প্রান্তে বেশ রয়েসয়ে ব্যাট করছিলেন আরেক ওপেনার নূর আলি জাদরান। তবে ২০ ওভার শেষ হতে আসে বৃষ্টি।

সে বৃষ্টি যেন আশীর্বাদই হয় দক্ষিণ আফ্রিকার জন্য। এ সময় ২ উইকেটে ৬৯ রান তুলেছিল আফগানিস্তান। কিন্তু বৃষ্টির পরে স্কোর বোর্ডে আর ৮ রান যোগ করতে নেই ৫ উইকেট। ১ রানের ব্যবধানেই হারিয়েছিল ৪ উইকেট। আর তাতে বড় চাপে পরে যায় দলটি।

মূলত লেগস্পিনার ইমরান তাহিরের ঘূর্ণিতে পড়েই খেই হারিয়ে ফেলে আফগানরা। তবে শেষ দিকে দারুণ লড়াই করেছিলেন রশিদ খান। অষ্টম উইকেটে ইকরাম আলি খিলের সঙ্গে ৪৪ রানের জুটি গড়েন। নিজে খেলেন ৩৫ রানের ইনিংস। মাত্র ২৫ বলে ইনিংসে ৬টি চার মেরেছেন তিনি। এছাড়া নূর আলি ৩২ ও জাজাই ২২ রান করেন।

দক্ষিণ আফ্রিকার পক্ষে ২৯ রানের খরচায় ৪টি উইকেট পান ইমরান তাহির। এছাড়া ক্রিস মরিস ৩টি ও আন্দিল ফেলুকাওয়ো ২টি উইকেট নেন।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here