ভারত পাকিস্তান হাইভোল্টেজ ম্যাচে টস জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন পাকিস্তান অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ। সোমবার (১৬ জুন) বাংলাদেশ সময় দুপুর সাড়ে তিনটায় ম্যানচেস্টারের ওল্ড ট্রাফোর্ড স্টেডিয়ামে শুরু হবে ম্যাচটি। ম্যাচটি সরাসরি সম্প্রচার করবে গাজী টিভি।

রাজনৈতিক বৈরী সম্পর্কের কারণে অনেকদিন ধরেই আর পাক-ভারতের মাঠের লড়াই দেখা হয় না দর্শকদের। তবে তারা এজন্য আইসিসি ও এশিয়ার কোন ইভেন্টের দিকে চেয়ে থাকে। শেষ পর্যন্ত আবারও চিরপ্রতিদ্বন্দ্বি দুই দলের লড়াই রোববার তারা দেখার সুযোগ পেয়েছেন। তার আগে অনেকেই জয়ী দলের নামও বলে দিয়েছেন। আর তা নিয়ে দুই দলের সমর্থকদের মধ্যে বিরাজ করছে চরম উত্তেজনা। যা থামাতে পারে কেবল মাঠের লড়াই।

সাম্প্রতিক সময়ে দুর্দান্ত ফর্মে রয়েছে ভারত। তাছাড়া চলতি বিশ্বকাপে দলটি এখন পর্যন্ত অপরাজিত। অন্যদিকে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও অস্ট্রেলিয়ার কাছে বেশ ব্যাকফুটে রয়েছে পাকিস্তান। যদিও তারা স্বাগতিক ইংল্যান্ডকে হারিয়ে দিয়েছিল চমক। আজ তেমন কিছুই প্রতিবেশি দেশটির বিপক্ষে করতে চাইছেন সরফরাজ আহমেদরা।

বিশ্বকাপের ইতিহাস এখন পর্যন্ত ৬বার মুখোমুখি হয়েছে ভারত-পাকিস্তান। কিন্তু এবারও জিততে পারেনি পাকরা। তবে আজ সেই ধারার পরিবর্তন আনতে চাইছে দলটি। যদিও সেটা হতে দিতে চায় না ভারত। আগের মতোই এ ইভেন্টের লড়াইয়ে আধিপত্য ধরে রাখতে তৈরি বিরাট কোহলি বাহীনি।

দুই দলের ওয়ানডে পরিসংখ্যানে অবশ্য এগিয়ে পাকিস্তান। ১৯৭৮ থেকে পর্যন্ত পর্যন্ত পাকিস্তান-ভারত মুখোমুখি হয়েছে ১৩১টি ওয়ানডেতে মুখোমুখি হয়েছে। যেখানে ভারতের ৫৪টির বিপরীতে পাকিদের জয় ৭৩ ম্যাচে, পরিত্যাক্ত ৪। তার মানে ওয়ানডেতে মহেন্দ্র সিং ধোনিদের তুলনায় এগিয়ে সরফরাজ আহমেদের দল।

পরিসংখ্যান:

মোট ম্যাচ: ১৩১, ভারত জয়ী: ৫৪, পাকিস্তান জয়ী: ৭৩, পরিত্যক্ত: ৪।

বিশ্বকাপ পরিসংখ্যান:

মোট ম্যাচ: ৬, ভারত জয়ী: ৬, পাকিস্তান জয়ী: ০।

একাদশ:

আঙুলে চোট পাওয়া শিখর ধাওয়ানের পরিবর্তে ভারতের একাদশে জায়গা পেয়েছেন বিজয় শঙ্কর। অর্থাৎ ওপেনিংয়ে রোহিত শর্মার সঙ্গী হবেন লোকেশ রাহুল। অলরাউন্ডার শঙ্কর খেলবেন চারে। পাকিস্তান তাদের একাদশে বদল এনেছে দুটি। ফিরেছেন শাদাব খান ও ইমাদ ওয়াসিম। বাদ পড়েছেন শাহিন শাহ আফ্রিদি ও আসিফ আলী।

ভারত:

লোকেশ রাহুল, শিখর ধাওয়ান, বিরাট কোহলি (অধিনায়ক), বিজয় শঙ্কর, মহেন্দ্র সিং ধোনি (উইকেটরক্ষক), কেদার যাদব, হার্দিক পান্ডিয়া, কুলদীপ যাদব, যুজবেন্দ্র চাহাল, ভুবনেশ্বর কুমার, জসপ্রিত বুমরাহ।

পাকিস্তান:

ফখর জামান, ইমাম উল হক, বাবর আজম, সরফরাজ আহমেদ (অধিনায়ক ও উইকেটরক্ষক), মোহাম্মদ হাফিজ, শোয়েব মালিক, ইমাদ ওয়াসিম, শাদাব খান, ওয়াহাব রিয়াজ, মোহাম্মদ আমির, হাসান আলী।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here