নকল বন্দুক দেখিয়ে চুরি, ছিনতাইয়ের ঘটনা নতুন নয়। কিন্তু একটি ফলকে বোমা বলে চালিয়ে দুটি ব্যাংক ডাকাতির ঘটনা মনে হয় আগে শোনা যায়নি। এমনই অবিশ্বাস্য কাণ্ড ঘটাল এক ইসরায়েলি ব্যক্তি। দক্ষিণ ইসরায়েলের বাসিন্দা ৪৭ বছরের এক ব্যক্তিকে সম্প্রতি সে দেশের পুলিশ গ্রেফতার করেছে। তারপরই চাঞ্চল্যকর এই ঘটনা সামনে এসেছে।

চলতি বছরের মে মাসের মাঝামাঝি ইসরায়েলে বিরশেবা এলাকায় দুটি ব্যাংক ডাকাতি হয়। প্রথম ঘটনায় বিরশেবা শপিং মলে একটি পোস্টাল ব্যাংকের ক্যাশ কাউন্টারে হাজির হয় ওই ব্যক্তি। কাউন্টারের দায়িত্বে থাকা নারীকে একটি চিরকুট দেয় সে। সেই চিরকুটে ভুল বানানে লেখা ছিল, ‘ড্রয়ারে যা টাকা আছে তা আমার হাতে তুলে দিন, না হলে গ্রেনেড ছুঁড়ে দেব’। ভয়ে ওই মহিলা ক্যাশ ড্রয়ারে যা ছিল বের করে অভিযুক্তের হাতে তুলে দেন। সেই অর্থ নিয়ে চম্পট দেয় ডাকাত।

এই ঘটনার পাঁচ দিন পর ওরেন সেন্টার বাজার এলাকায় ফের একটি পোস্টাল ব্যাংকে হানা দেয়। সেখানেও একই কায়দায় ব্যাংক লুট করে পালায় অভিযুক্ত। দুটি ব্যাংক মিলিয়ে লুট হওয়া অর্থের পরিমাণ ৮ হাজার ৩০০ মার্কিন ডলার। মুখ ঢেকে, সানগ্লাস পরে ডাকাতি চালায় ওই অভিযুক্ত। ফলে প্রথমে তাকে খুঁজে বের করা কঠিন হয়েছিল। কিন্তু মোবাইল টাওয়ার লোকেশনও অন্যান্য প্রযুক্তির সাহায্য নিয়ে পুলিশ ধরে ফেলে ডাকাতকে। তারপরেই চমকে যান তদন্তকারীরা।

জানা গেছে, ডাকাতির সময় তার হাতে গ্রেনেড নয়, ছিল অ্যাভোকাডো ফল। যার গড়ন অনেকটা হ্যান্ড গ্রেনেডের মতো। সেই ফলে কালো রং করে হ্যান্ড গ্রেনেডের মতো বানিয়ে ফেলেছিল ওই ডাকাত। এক নজরে দেখে কেউ বুঝতেই পারেনি ওটি ফল না গ্রেনেড। গ্রেফতারের পর তার বিরুদ্ধে ব্যাংক ডাকাতিসহ একাধিক অভিযোগ দায়ের করে মামলা শুরু হয়েছে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here