চালুর দিনই বন্ধ হয়ে গেছে সৌদি আরবের আলোচিত হালাল নাইটক্লাব। বৃহস্পতিবার এটি চালুর পরপরই বন্ধ হয়ে যায়। কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, আইনগত প্রক্রিয়া অনুসরণ না করায় নাইটক্লাবটিকে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

দুবাইভিত্তিক সংবাদমাধ্যম এরাবিয়ান বিজনেস এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, নাইটক্লাব ব্র্যান্ড ‘হোয়াইট’ জেদ্দায় তাদের একটি শাখা চালু করতে চেয়েছিল। এজন্য সব প্রস্তুতিও সম্পন্ন হয়। শেষ পর্যন্ত উদ্বোধনের দিন মার্কিন গায়ক নে-ইয়ো আসার আগেই এটি বন্ধ ঘোষণা করে সৌদি কর্তৃপক্ষ।

এর আগে গত সপ্তাহে সৌদিতে হালাল নাইটক্লাব চালু সম্পর্কিত খবর জানায় হোয়াইট। তারা বলে, আমাদের জন্য সৌদি দারুণ একটি বাজার হবে। সেখানকার মানুষরা অনেক বেশি বাইরে বের হয়। বাইরে বের হয় এমন মানুষ বেশি থাকলে স্বাভাবিকভাবেই আমাদের বাজার ভালো হবে।

সৌদিতে হালাল নাইটক্লাব চালু হবে এমন খবর শোনার পর থেকে বিষয়টি নিয়ে ব্যাপক আলোচনা শুরু হয়। তখন অনেকে হাস্যরসে মেতে ওঠেন আর কেউবা ফেটে পড়েন ক্ষোভে।

এ সময় নাইটক্লাবের বিরোধীরা বিভিন্নভাবে তাদের হতাশা প্রকাশ করেন। বিশেষ করে তারা ফেসবুকে হ্যাশট্যাগ দিয়ে যা লিখেন তার অর্থ হলো- জেদ্দা বিচে আমি নিষিদ্ধ কার্যক্রম সমর্থন করি না।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here