ভাগ্যদেবী সহায় ছিল না ব্রাজিলের। না হলে তিন তিনটি গোল বাতিল হয় সেলেসাওদের? মঙ্গলবার কোপা আমেরিকায় তেমনই একটি ম্যাচে তারা ভেনেজুয়েলার কাছে ড্র করেছে গোল শূন্যতে ।

মুহুর্মুহু আক্রমণের ঢেউ তুললেও ব্রাজিলকে গোল বিমুখ হতে হয়েছে বার বার। প্রথমার্ধের শেষ দিকে গোল পেয়েছিলেন রবের্তো ফিরমিনো। আর সেই গোলটিই বাতিল হয়েছে ফাউলের সুবাদে।

এমন করে গোল বিমুখ হতে হয়েছে আরও দুবার। বদলি গাব্রিয়েল জেসুস ঘণ্টা খানেকের মাথায় জালের ঠিকানা খুঁজে পেলেও প্রযুক্তির বাধায় বাতিল হয়েছে সেই গোলটিও। ভিডিও অ্যাসিসটেন্ট রেফারি জানিয়ে দেয় অফসাইডের ফাঁদে পড়েছিলেন ফিরমিনো। শেষ বাতিলের খাতায় নাম লেখান আরেক তারকা ফিলিপে কৌতিনিয়ো। সেখানেও বাধা ছিল এই ভিডিও অ্যাসিসটেন্ট রেফারি।

ড্র করলেও দুই ম্যাচে চার পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে রয়েছে আটবারের কোপা চ্যাম্পিয়নরা। সমান সংখ্যক ম্যাচে সমান পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে পেরু। তবে গোল ব্যবধানে এগিয়ে থাকায় এক নম্বর অবস্থানে রয়েছে ব্রাজিল।

গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচটির অষ্টম মিনিটে ক্যাসেমিরো কিংবা একাদশ মিনিটে ফিলিপ্পে কৌতিনহোও সাজান ভালো আক্রমণ। তবে ম্যাচের ১৫তম মিনিটে দারুণ এক সুযোগ আসে নেরেসের সামনে। আর্থুর মেলোর কাছ থেকে পাস পেয়ে তিনি ১৮ গজ দূর থেকে শট নিলেও, তা চলে যায় বার ঘেঁষে। মিনিট দুয়েকবাদে গোল মিসের হতাশায় পুড়েন রিচার্লিসন।

এতসব গোল মিসের হতাশায় ৩৯তম মিনিটে ঠিকই জালের ঠিকানা খুঁজে নিয়েছিলেন রবার্তো ফিরমিনো। কিন্তু বাঁধ সাধেন রেফারি, যার দায় পুরোটা ফিরমিনোরই। কেননা ডান পাশ থেকে আসা দানি আলভেসের ক্রস রিসিভ করতে গিয়ে, তিনি ডি-বক্সের মধ্যে ফেলে দেন ভেনেজুয়েলার ডিফেন্ডার ভিলানুয়েবাকে।

ফলে ফাউলের বাঁশি বাজান রেফারি, গোল করেও বঞ্চিত হন ফিরমিনো। গোলশূন্য অবস্থায় থেকেই বিরতিতে যায় দুই দল। বিরতি থেকে ফিরে দ্বিতীয়ার্ধে নামার সময়ই রিচার্লিসনের বদলে গ্যাব্রিয়েল হেসুসকে মাঠে নামান ব্রাজিলিয়ান কোচ তিতে।শক্তিশালী ব্রাজিলকে রুখে দিল ভেনেজুয়েলা

মাঠে নেমে মাত্র ১৫ মিনিটের মাথায়ই বল জালে জড়ান হেসুস। কিন্তু এবারও গোল বাতিল করে দেন রেফারি। যার পেছনে আবারও থেকে যায় ফিরমিনোর নাম। ডি-বক্সের বাইরে থেকে হেসুসের শট ডিফেন্ডারের পায়ে লেগে দিকভ্রষ্ট হয়ে গেলে তা পান ফিরমিনো।

কিন্তু তখন তিনি ছিলেন অফসাইড পজিশনে। ফলে তার কাছ থেকে ফিরতি বল পেয়ে হেসুস গোল করলেও সেটি ভিএআরের সহায়তা নিয়ে বাদ দিয়ে দেন রেফারি। যে কারণে আরও একবার হতাশায় পুড়ে স্বাগতিক দর্শকরা।

ব্রাজিল যখন গোল পেতে মরিয়া ঠিক তখনই ৮৭তম মিনিটে গোল করে বসেন ব্রাজিলের আগের ম্যাচের জয়ের নায়ক ফিলিপ কৌতিনহো। কিন্তু এবারও ভিএআরের সহায়তা নিয়ে গোল বাতিলের ঘোষণা দেন রেফারি।  এতে শেষ পর্যন্ত খালি হাতেই ফিরতে হয় স্বাগতিকদের।শক্তিশালী ব্রাজিলকে রুখে দিল ভেনেজুয়েলা

এর আগে টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী ম্যাচে বলিভিয়ার মুখোমুখি হয় স্বাগতিক ব্রাজিল। লিগ পর্বে নিজেদের প্রথম ম্যাচে দলটিকে ৩-০ ব্যবধানে হারিয়ে পয়েন্ট টেবিলে শীর্ষ স্থান দখল করে ৪৬তম কোপা আমেরিকার আয়োজকরা।

এদিকে নিজেদের প্রথম ম্যাচের মতো এই ম্যাচেও ১ পয়েন্ট নিয়ে সন্তুষ্ট থাকতে হচ্ছে ভেনেজুয়েলাকে। প্রথম ম্যাচে পেরুর বিপক্ষে গোল শূন্য ড্র করে ভেনেজুয়েলা।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here