ইরানের তেলমন্ত্রী বিজান নামদার জাঙ্গানে বলেছেন, তার দেশের তেল রপ্তানি শূন্যের কোঠায় নামিয়ে আনার জন্য তেলের ক্রেতাদেরকে হুমকি-ধমকি দিচ্ছে আমেরিকা। কিন্তু অপকৌশলের মাধ্যমে ইরানের তেল রপ্তানি ঠেকানোর মার্কিন বাসনা কোনোদিনও পূর্ণ হবে না।

তিনি গতকাল (বুধবার) রাজধানী তেহরানে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপ করার সময় এ মন্তব্য করেন। ইরানের তেলমন্ত্রী বলেন, মার্কিন নিষেধাজ্ঞা ব্যর্থ করে দেয়ার জন্য প্রয়োজনীয় পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে তেহরান এবং এ পরিকল্পনা সফল হবেই। তেল রপ্তানির ক্ষেত্রে বর্তমানের সাময়িক অসুবিধা ইরান কাটিয়ে উঠবে বলে দৃঢ় প্রত্যয় জানান জাঙ্গানে।

মার্কিন সরকার গত বছরের মে মাসে আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘন করে ইরানের পরমাণু সমঝোতা থেকে বেরিয়ে যায়। এরপর নভেম্বরে তেল রপ্তানিসহ নানা খাতে ইরানের ওপর কঠোর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে ওয়াশিংটন। তবে আটটি দেশকে ইরানের কাছ থেকে তেল কেনার জন্য ছয়মাসের ছাড় দেয় মার্কিন সরকার।

গত ২২ এপ্রিল ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রশাসন ওইসব দেশকে দেয়া ছাড় প্রত্যাহার করে নেয়। ইরানের তেল রপ্তানি বন্ধ হলে আন্তর্জাতিক বাজারে যাতে তেলের ঘাটতি দেখা না দেয় সেজন্য সৌদি আরব ও সংযুক্ত আরব আমিরাত তেলের উৎপাদন বাড়িয়ে দেয়ার ঘোষণা দিয়েছে।

তবে ইরান শুরু থেকে বলে এসেছে, নিষেধাজ্ঞা দিয়ে ইরানের তেল রপ্তানি বন্ধ করা যাবে না। ইরানের সর্বোচ্চ নেতা এক ভাষণে বলেছেন, তার দেশ যখন যতটুকু তেল বিক্রি করার ইচ্ছা করবে তখন ততটুকু তেল ইরান থেকে রপ্তানি হবে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here