বুধবার (১৯ জুন) জাম্মু ও কাশ্মির এবং মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের পেসার রাশিক সালামকে নিষিদ্ধ করেছে বোর্ড অফ কন্ট্রোল ফর ক্রিকেট ইন ইন্ডিয়া (বিসিসিআই)। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের কাছে ভুয়া জন্ম নিবন্ধনের সনদ দেওয়াতে এমন পরিণতি হয়েছে এই ডানহাতি পেসারের।

ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড রাশিক সালামকে বাদ দিয়ে প্রভাত মরিয়াকে অনূর্ধ্ব-১৯ দলে টেনেছে। ইংল্যান্ডে আগামী ২১ জুলাই থেকে একটি ওয়ানডে ত্রিদেশীয় সিরিজ খেলবে ভারতীয় যুবারা। সেখানে নাম ছিল প্রতিশ্রুতিশীল পেসার রাশিক সালামের। উল্লেখ্য এহানে তৃতীয় দলটির নাম বাংলাদেশ।

জাম্মু ও কাশ্মিরে স্টেট বোর্ড অফ স্কুল এডুকেশন জাম্মু ও কাশ্মির ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন (জেকেসিএ) কে আগেই জানিয়েছিল যে রাশিক সালাম বয়স নিয়ে ছলচাতুরী করেছে।

আইএএনএস এর দেওয়া তথ্যাদি দেখে ভারতীয় বোর্ড নিশ্চিত করেছে এবং জেকেসিএ কে জানিয়েছে রাশিকের মূল নিবন্ধনের তথ্য ও বোর্ডে দেওয়া তার ত্থ্যে গড়মিল আছে। রাশিকের দশম শ্রেণীতে নিবন্ধনের সময় যে বয়স লিপিবদ্ধ করা তার সাথে মিল খুজে পায়নি বিসিসিআই।

আইপিএলের (ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ)১২ তম আসরে রাশিক সালাম খেলেছিলেন মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের হয়ে। মুম্বাইয়ের হয়ে মাত্র ১ ম্যাচ খেলার সুযোগ পেলেও জোরে বল করার সক্ষমতা থাকা রাশিক সালামকে ধরা হচ্ছিলো দারুণ এক প্রতিশ্রুতিশীল পেসার হিসাবে।

এই দুই বছরের নিষেধাজ্ঞা রাশিক সালামের ক্রিকেট ক্যারিয়ারের জন্য একটা বড়সড় ধাক্কা। তবে এমন দৃষ্টান্ত অন্যদের জন্য শিক্ষণীয়।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here