মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প তার ভাষায় বলেছেন, ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরান যদি পরমাণু অস্ত্র তৈরির প্রচেষ্টা বাদ দেয় তাহলে তিনি হবেন এ দেশটির শ্রেষ্ঠ বন্ধু। একইসঙ্গে ইরানকে তিনি সম্পদশালী দেশে পরিণত করবেন বলে উল্লেখ করেছেন।

গতকাল (শনিবার) হোয়াইট হাউজে সাংবাদিকদের ট্রাম্প বলেন, “তারা পরমাণু অস্ত্রের অধিকারী হতে পারবে না। আমরা তাদেরকে পরমাণু অস্ত্রের অধিকারী হতে দেব না।”

ট্রাম্প আশা করেন, “ইরান রাজি হলে সম্পদশালী দেশে পরিণত হবে এবং আমি হব তাদের শ্রেষ্ঠ বন্ধু। আশা করি এটি হতে যাচ্ছে।”

ট্রাম্পের এ বক্তব্য সম্পর্কে আমেরিকার রাজনৈতিক বিশ্লেষক মাইলেস হোয়েনিং বলেন, ট্রাম্প বিদ্বেষ ছড়ানো বক্তব্যকে স্বাগত জানান এবং নিজেও দেশে-বিদেশে এ ধরনের বক্তব্য দিয়ে থাকেন সেই ট্রাম্পকে যদি শান্তি প্রতিষ্ঠাকারী হিসেবে দেখতে হয় তাহলে তা দুর্ভাগ্যজনক।

ট্রাম্প নতুন করে ইরানকে জড়িয়ে পরমাণু বোমা নিয়ে বক্তব্য দিলেও ইরান সবসময় বলে আসছে তেহরান পরমাণু বোমা বানাতে ইচ্ছুক নয়। ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাল্লিাহ উজমা খামেনয়ী পরমাণু বোমা তৈরি, ব্যবহার কিংবা গচ্ছিত রাখাকে হরাম ফতোয়া দিয়েছেন।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here