তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত চাভুসওগ্লু বলেছেন, রাশিয়ার কাছ থেকে অত্যাধুনিক ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা ‘এস-৪০০’ ক্রয়ের ক্ষেত্রে তার দেশ মার্কিন নিষেধাজ্ঞাকে ভয় পায় না। তিনি আরো জানিয়েছেন, এই ব্যবস্থা কেনার চুক্তি চূড়ান্ত পর্যায়ে রয়েছে এবং এখন এটি হস্তান্তরের তারিখ নির্ধারণ করা নিয়ে মস্কোর সঙ্গে আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে আঙ্কারা।

সোমবার আঙ্কারায় রুয়ান্ডার পররাষ্ট্রমন্ত্রী রিচার্ড সেজিবেরা’র সঙ্গে এক যৌথ সংবাদ সম্মেলনে চাভুসওগ্লু আরো বলেন, “আমরা এরইমধ্যে এস-৪০০ কিনে ফেলেছি। এখন আমেরিকা কি নিষেধাজ্ঞা দেয় বা কোন বিবৃতি প্রকাশ করে তা আমাদের কাছে মোটেই গুরুত্বপূর্ণ নয়।”

তুর্কি পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, “রাশিয়া কবে নাগাদ এস-৪০০ হস্তান্তর করবে এখন আমরা সে বিষয়ে আলোচনা করছি। কাজেই এখন আর এ ব্যবস্থা ফিরিয়ে দেয়ার প্রশ্নই ওঠে না।”

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোগান এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা কেনার জন্য ২০১৭ সালের ডিসেম্বরে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে চুক্তি সই করেন। কিন্তু মার্কিন সরকার শুরু থেকেই এ চুক্তির তীব্র বিরোধিতা করে বলেছে, পশ্চিমা সামরিক জোট ন্যাটোর সদস্য হিসেবে রাশিয়ার কাছ থেকে ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা কেনা তুরস্কের উচিত হবে না। এ হুঁশিয়ারি সত্ত্বেও আঙ্কারা মস্কোর কাছ থেকে এস-৪০০ সংগ্রহ করলে তুরস্কের ওপর তিন ধরনের নিষেধাজ্ঞা আরোপের হুমকি দিয়ে রেখেছে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here