কলকাতার সিনেমার জনপ্রিয় নায়িকা নুসরাত জাহান। জন্মগতভাবে তিনি একজন মুসলিম। তবে সম্প্রতি তিনি বিয়ে করেছেন এক হিন্দু ধর্মাবলম্বী ব্যবসায়ীকে। তার নাম নিখিল জৈন। বিয়ের পর নুসরাতের মাথায় সিঁদুরও দেখা গেছে। আর এই বিষয় নিয়েই শুরু হয়েছে বিতর্ক।

কয়েক দিন আগে সংসদে শপথগ্রহণ করেন নুসরাত জাহান। লোকসভা নির্বাচনে জয়ের পর তিনি সংসদের অধিবেশনে যোগ দিয়েই নজর কাড়েন সবার। সেদিন তার পরনে ছিল শাড়ি, মেহেন্দি, সিঁদুর; সবই।

এই বিষয়ে নুসরাত জাহান একটি সাক্ষাৎকারে বলেছেন, আমার মাথায় সিঁদুর দেখে অনেকে প্রশ্ন করেছেন, আমি কি হিন্দুকে বিয়ে করে হিন্দু হয়ে গেলাম? আমার তো মনে হয় কোন ধর্ম অনুসরণ করব, সেই সিদ্ধান্ত নেওয়ার অধিকার সকলের রয়েছে। আমি জন্মসূত্রে মুসলমান। ইসলাম ধর্মই অনুসরণ করছি। কিন্তু সব ধর্ম এবং তার নিয়মের প্রতি শ্রদ্ধা রয়েছে আমার। আমি এবং আমার স্বামী আমাদের ধর্ম পালন করছি। আমার তো মনে হয় এটাই স্বাভাবিক।

বিতর্কের প্রসঙ্গে নুসরাত বলেন, আমি যে কতবার ট্রোলড হয়েছি, তার কোনও হিসাব নেই। আমার তো মনে হয় ট্রোলিং ভালবাসারই ভিন্ন প্রকাশ। আসলে মানুষ এসব করেন দৃষ্টি আকর্ষণ করার জন্য। মনোযোগ না পেলেই ট্রোলিং শুরু করেন। জীবনে নেগেটিভিটিকে কখনও গুরুত্ব দিইনি। কাজই সবসময় আমার হয়ে কথা বলেছে। এ বারও তাই হবে।

অভিনেতা-অভিনেত্রীরা সাংসদ হওয়ার পর সংসদে তাদের উপস্থিতি খুব কম থাকে। তবে নিজেকে সেই কাতারে ফেলতে চাইছেন না নুসরাত। তিনি বলেন, আমার লোকসভা এলাকার সাধারণ মানুষের প্রতিনিধি আমি। তাদের সাহায্য দরকার। তাই সংসদের কাজে আমি অংশ নেবই। তাদের যখনই সাহায্য প্রয়োজন, আমি আছি।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here