স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়, তথ্য ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় এবং তথ্য মন্ত্রণালয়ের যাচাই-বাছাইয়ের পর অনলাইন সংবাদমাধ্যম নিবন্ধিত হবে বলে জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ।

শনিবার (২৯ জুন) রাজধানীর শিল্পকলা একাডেমির চিত্রশালায় আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা উপ-কমিটির উদ্যোগে “তারুণ্যের ভাবনায় আওয়ামী লীগ” শীর্ষক মতবিনিময় সভায় এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, সমস্ত অনলাইন নিউজ পোর্টালগুলোকে নিবন্ধনের জন্য আগামী ৩০ জুন পর্যন্ত আবেদনের সময় নির্ধারণ করে দেয়া হয়েছে। প্রয়োজনে এক সপ্তাহ সময় আরও বাড়ানো হতে পারে। এর আগে ৩ হাজার আবেদন জমা পড়েছিল। পরের বার আরও ৫ হাজার আবেদন জমা পড়েছে।

ড. হাছান মাহমুদ বলেন, আগে ৪০ লাখ মানুষ সামা‌জিক যোগা‌যোগমাধ্যম ব্যবহার কর‌ত। এখন ৯ কোটিরও বেশি মানুষ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহার করছে। মানুষের মত প্রকাশের অধিকার বাড়তে থাকুক আমরা সেটা চাই। অধিকার অবা‌রিত করতে গিয়ে যাতে অন্যের অধিকার খর্ব না হয়, রাষ্ট্রের কোনো ক্ষতি না হয়, অস্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টি না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। সেই কারণে আমাদের সরকার ডিজিটাল সিকিউরিটি অ্যাক্ট করেছে। যার মাধ্যমে কেউ যদি গুজব ছড়ায় তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার সুযোগ রয়েছে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এবং প্রচার ও প্রকাশনা কমিটির সভাপতি এইচ টি ইমাম,  ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম, আওয়ামী লীগের উপ-প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন, শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল প্রমুখ।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here